ফেসবুক স্ট্যাটাসের জের : বাংলাদেশি ছাত্রীকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ

প্রকাশিতঃ ৮:০২ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০

পশ্চিমবঙ্গের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি এক ছাত্রীকে ভারত ছাড়তে বলেছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। তার বিরুদ্ধের ভারতীয় ’সরকারবিরোধী কর্মকাণ্ডে’ অংশ নেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।

নাগরিগত্ব সংশোধন আইনের (সিএএ) বিরুদ্ধে বিশ্বভারতী ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভের কিছু ছবি ফেসবুকে পোস্ট করার পর বাংলাদেশি ওই শিক্ষার্থীকে এ নির্দেশ দেওয়া হয়। খবর দ্য টেলিগ্রাফের।

বিশ্বভারতীর কেন্দ্রীয় কলাভবনের চারুকলা অনুষদের গ্রাফিক ডিজাইনের প্রথম বর্ষের ছাত্রী আফসারা আনিকা মিম সিএএ-বিরোধী ছবি ফেসবুকে পোস্ট করার পর ‘ট্রলের’ শিকার হন। কুষ্টিয়ার এই মেয়ে ২০১৮ সালে বিশ্বভারতীতে গ্রাফিক ডিজাইন পড়তে যান।

ভারতের নতুন নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের বিরুদ্ধে গত ডিসেম্বরে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের একাংশ বিশ্বভারতী ক্যাম্পাসে বেশ কয়েকবার বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে। এসব বিক্ষোভের ছবি ফেসবুকে নিজের অ্যাকাউন্টে পোস্ট করেছিলেন মিম। এরপর গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিদেশি আঞ্চলিক নিবন্ধকের অফিস থেকে মিমকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ দিয়ে চিঠি দেওয়া হয়।

চিঠিতে বলা হয়, বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী আফসারা আনিকা মিম এস-১ (শিক্ষার্থী) ভিসার জোরে ভারতে অবস্থান করছেন, পশ্চিমবঙ্গের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাচেলর অব ডিজাইন কোর্সে পড়ছেন। তার বিরুদ্ধে সরকারবিরোধী কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হওয়ার প্রমাণ মিলেছে এবং এ ধরনের কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে তিনি ভিসার শর্ত লঙ্ঘন করেছেন।’

বাংলাদেশি ছাত্রী মিমকে এই চিঠি পাওয়ার ১৫ দিনের মধ্যে ভারত ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ