বাকশাল ঐক্যের প্ল্যাটফর্ম: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ ২:৩৫ অপরাহ্ণ, শনি, ৯ নভেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: বাকশাল ঐক্যের প্ল্যাটফর্ম দাবি করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, অর্থনীতির দ্রুত বিকাশের লক্ষ্যে দেশের সব শ্রেণির মানুষকে নিয়ে একটি জাতীয় ঐক্যের ডাক দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ঐক্যের নাম বাকশাল, বাংলাদেশ কৃষক শ্রমিক লীগ।

শনিবার (৯ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শ্রমিক লীগের ১৩তম জাতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে সকাল ১০টা ৪২ মিনিটে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনের পর যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশের শিল্প কারখানাগুলো নতুন করে চালু করা হয়েছিল। কৃষক শ্রমিককে দেশের অর্থনীতির মূল ভিত্তি বিবেচনা করে বাকশালের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতির মুক্তি দ্রুত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল।

সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, গত ৪৪ বছরে বাংলাদেশের সবচেয়ে দক্ষ প্রশাসক, সবচেয়ে সৎ ও সাহসী রাজনীতিবিদের নাম শেখ হাসিনা। ৭৫ পরবর্তী সফল কূটনীতিকের নাম শেখ হাসিনা। আপন ঘর থেকে দুঃসাহসিক শুদ্ধি অভিযান চালিয়ে তিনি সততার প্রমাণ দিয়েছেন।

অনুষ্ঠানে শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, তৈরি পোশাক শিল্পে সবুজ কারখানা (গ্রিন ফ্যাক্টরি) নির্মাণে বিশ্বের প্রথম ১০টি উন্নতমানের কারখানার সাতটিই বাংলাদেশে। ৯০ শতাংশ শিশুকে শিশু শ্রম থেকে বের করে আনা হয়েছে। ১ লাখ শিশুকে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠান থেকে তুলে আনা হবে। সরকারি শিল্প প্রতিষ্ঠানে শিশু শ্রমিক নেই। আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার আইন অনুযায়ী, ১৪ বছরের নিচে কোনও শিশু শ্রমিককে কাজে নিয়োগ করা যায় না। তিনি বলেন, সরকার শ্রমিকদের জন্য সর্বনিম্ন আট হাজার টাকা মজুরি নির্ধারণ করেছে। ৪২টি সেক্টরে মজুরি নির্ধারণ করেছে।

জাতীয় শ্রমিক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, আওয়ামী লীগের শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ বলেন, চারদলীয় জোট সরকারের সময় দেশে অসংখ্য মিল, কলকারখানা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে এসব কল-কারখানা পুনরায় চালু করেছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুকুর মাহমুদ। তিনি বলেন, পোশাক খাতের শ্রমিকসহ দেশের প্রতিটি সেক্টরে শ্রমিকদের মজুরি বাড়ানো হয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ