বাবার বাড়িতে দুই বোনের প্রবেশ নিশ্চিত করতে হাইকোর্টের নির্দেশ

প্রকাশিতঃ ১০:২৫ অপরাহ্ণ, সোম, ২৬ অক্টোবর ২০

আদালত ডেস্ক : রাজধানীর গুলশানে বাবার বাড়িতে ঢুকতে বাধার সম্মুখীন হওয়া দুই বোন মুশফিকা মোস্তফা ও মোবাশশারা মোস্তফাকে পুলিশ প্রহরায় অবিলম্বে তাদের পৈতৃক বাড়িতে প্রবেশের ব্যবস্থা করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। গুলশান থানার ওসিকে সোমবার সন্ধ্যায় এ নির্দেশ দেওয়া হয়। সোমবার রাতের মধ্যেই গুলশান ২ নম্বরে ৯৫ নম্বর রোডের ৪ নম্বর হোল্ডিংয়ে বাবার বাড়িতে তাদের প্রবেশ নিশ্চিত করে সুপ্রিম কোর্টকে ফোনে জানাতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও আহমেদ সোহেল সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। পাশাপাশি গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, মুশফিকা ও মোবাশশারা এবং অভিযুক্ত অনজু কাপুরকে ১ নভেম্বর সকালে আদালতে হাজির থাকতে বলা হয়েছে। পরে আদালতের এই আদেশের বিষয়টি গুলশান থানার ওসিকে অবহিত করেন সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র ব্যারিস্টার সাইফুর রহমান।

মুশফিকা ও মোবাশশারার বাবা বিমানবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন মোস্তফা জগলুল ওয়াহিদ গত ১০ অক্টোবর মারা যান। গুলশানে ১০ কাঠা জমির ওপর তিন তলা বাড়ি তার। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত দ্বিতীয় স্ত্রী অনজু কাপুরকে নিয়ে এ বাড়িতেই থাকতেন তিনি। তার মৃত্যুর পর থেকেই মুশফিকা ও মোবাশশারাকে বাবার বাড়িতে ঢুকতে বাধা দেন তাদের সৎমা অনজু কাপুর। বাধা পেয়ে দিন-রাত দুই বোন পৈতৃক বাড়ির সামনে অবস্থান করেন। কিন্তু কোনোভাবেই তারা ঢুকতে পারেননি। এ বিষয়ে গুলশান থানায় সাধারণ ডায়েরিও করেছিলেন তারা।

মুশফিকা রাত ৯টায় সংবাদমাধ্যমকে জানান, সোমবারও সারাদিন তারা দুই বোন বাবার বাড়ির সামনে অবস্থান করেন। রাত ৮টায় গুলশান থানার ওসি আবুল হাসান তাকে ফোন করে বলেছেন- তিনি হাইকোর্টের অর্ডার হাতে পেয়েছেন। রাতেই তাদের বাবার বাড়িতে প্রবেশ করানোর জন্য পুলিশ আসবে। এ জন্য তাদের বাড়ির সামনে থাকতে বলেছেন।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।