বিএলএ পেশা সমাজে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে

প্রকাশিতঃ ৯:২৬ অপরাহ্ণ, বুধ, ৬ নভেম্বর ১৯

শাহবাগ প্রতিনিধি: বাংলাদেশর সংবিধান প্রণয়ন দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ লিডার্স এসেম্বলি “বাংলাদেশের সংবিধান ও বর্তমান বাস্তবতা” শিরোনামে এক আলোচনা সভার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানটির গঠনতন্ত্র প্রকাশ করা হলে বিএলএ পেশা সমাজ জীবনে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে উপস্থিত বক্তারা মনে করেন।

৪ নভেম্বর রাজধানী কাটাবনের দীপনপুরে এ অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক আবুল কাশেম ফজলুল হক, সাবেক বিচারপতি সিকদার মকবুল হক, সাবেক জেলা ও দায়রা জজ সা ক ম আনিসুর রহমান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়য়ের আইন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. রবিউল ইসলাম বাবু, সুপ্রিম কোর্টের এডভোকেট তানজিম আল ইসলাম। আরও উপস্থিত ছিলেন দেশের প্রথিতযশা ব্যক্তিবর্গ।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ লিডার্স এসেম্বলি একটি রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে একবছর পূর্বে আত্মপ্রকাশ করে। প্রতিষ্ঠানটি ২১ জন কর্ণধারের নেতৃত্বে পরিচালিত হয়ে আসছে। বর্তমানে পরিচালনা পর্ষদটি নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি এস এম সনেট মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক আইনুল ইসলাম বিশাল।

বাংলাদেশ লিডার্স এসেম্বলি (বিএলএ) সমাজের সকল শ্রেনী পেশার ছাত্র-তরুণ-যুবকদের নিয়ে একটি রাজনৈতিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে নানা ধরনের আকর্ষণীয় কর্মসূচির আয়োজন করে থাকে। বিএলএর বিশেষ কর্মসূচি হচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের আদলে সিলেকশন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ছায়া সংসদ গঠন ও অধিবেশন পরিচালনা করা। নেতৃবৃন্দ মনে করেন, বিএলএ কর্মসূচির মধ্য দিয়ে তরুণরা প্রাতিষ্ঠানিক ভাবে নেতৃত্বের গুণাবলি অর্জন করবেন এবং পেশা ও সমাজ জীবনেও এর ইতিবাচক প্রভাব রাখবেন।

সময় জর্নাল/ আহমেদ জাবের

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ