বিনামূল্যে বই বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন

প্রকাশিতঃ ১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গল, ৩১ ডিসেম্বর ১৯

সময় জার্নাল ডেস্ক : শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে ২০২০ শিক্ষাবর্ষের বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবনে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দিয়ে এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

আগামী ১ জানুয়ারি সারাদেশে ‘জাতীয় পাঠ্যপুস্তক উৎসব’ উদযাপন করা হবে।

এর আগে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা এবং জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেওয়া হয়। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন প্রধানমন্ত্রীর হাতে ফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেন।

প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের (মাদ্রাসা, কারিগরিসহ) সোয়া চার কোটি শিক্ষার্থীর মধ্যে এবার বিনামূল্যে বই বিতরণ করা হবে।

২০১০ সাল থেকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের সব শিক্ষার্থীকে বিনামূল্যে নতুন পাঠ্যবই দেওয়া শুরু করে সরকার। এরপর ধারাবাহিকভাবে শিক্ষার্থীদের বছরের শুরুতে উৎসব করে বিনামূল্যে বই দেওয়া হচ্ছে।

আসন্ন শিক্ষাবর্ষে ৪ কোটি ২৭ লাখ ৫২ হাজার ১৯৮ শিক্ষার্থীর জন্য ৩৫ কোটি ৩১ লাখ ৫৪ হাজার ৬৩৮ কপি বই ছাপার কাজ শেষ করেছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। এর মধ্যে প্রাথমিক স্তরের (প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি) বই ৯ কোটি ৮৫ লাখ ৫ হাজার ৪৮০টি। প্রাক্‌-প্রাথমিক স্তরের বই ৬৬ লাখ ৭৫ হাজার ২৭৬টি।

মাধ্যমিকের (বাংলা ভার্সন) বই ১৮ কোটি ১ লাখ ৮৮ হাজার ৬৩৯টি। বাকি বই মাদ্রাসা ও কারিগরি এবং ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের জন্য।

প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের জন্য নিজেদের ভাষায় (পাঁচটি ভাষায়) লেখা বই দেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া ৭৫০ দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীর জন্য ৯ হাজার ৫০৪টি বই ছাপা হয়েছে।

সময় জার্নাল/আরইউটি

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ