বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করা উচিত বিএনপির আইনজীবীদের: নাসিম

প্রকাশিতঃ ৫:১৮ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ৫ ডিসেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্টে বিএনপির আইনজীবীদের হট্টগোল ও অবস্থানের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপির আইনজীবীদের আদালতে চকলেট না খেয়ে বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করা উচিত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের আব্দুস সালাম হলে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিএনপির আইনজীবীরা চকলেট মুখে দিয়ে আদালতে অবস্থান করছেন এমন মন্তব্য করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘আজকে দণ্ডিত আসামির জামিনের জন্য সর্বোচ্চ আদালতকে জিম্মি করেছে বিএনপি। এই কাজ আমরা কোনোদিন করিনি। আমরা আইনি লড়াই করে মুক্ত হয়েছি। চকলেট মুখে দিয়ে আইনজীবীরা সুপ্রিম কোর্টে বসে আছেন। কেউ কোনোদিন বলতে পারবে যে, জোর করে জামিন নেয়া যায়?’

বিএনপি তিনি বলেন, ‘আজকে বিএনপি মনে করেছে, কোর্টের সুষ্ঠু পরিবেশ নষ্ট করে, সুপ্রিম কোর্টে অবস্থান ধর্মঘট করে, চকলেট মুখে দিয়ে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবে। আইনজীবীরা চকলেট মুখে দিয়ে তাকে মুক্ত করবে। তারা আইনজীবী হিসেবে আন্দোলন করতে পারে নাই। ব্যর্থতার জন্য ওদের বিষ খাওয়া উচিত, চকলেট না। বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করা উচিত।’

শকুনের দোয়ায় গুরু মরে না মন্তব্য করে ১৪ দলের এই মুখপাত্র বলেন, ‘আজকে বিএনপির উদ্দেশ্য হচ্ছে বিশৃঙ্খলা করে ক্ষমতা দখল করা। শকুনের দোয়ায় গরু মরে না।’

কমিশন গঠন করে জেল হত্যার দায়ে জিয়াউর রহমানের বিচার দাবি করে নাসিম বলেন, ‘কমিশন করে খলনায়কের চরিত্র উন্মোচন করতে হবে। না-হলে কেউ বুঝতে পারবে না কীভাবে জিয়াউর রহমান পরিকল্পনা করে, রাজনীতি শূন্য করার জন্য জেলখানায় চার নেতাকে হত্যা করেছিল। কমিশন করে এইটা বের করতে হবে। জিয়াউর রহমানের খুনির দল হলো আজকে খালেদা জিয়ার দল।’

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন— তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, সাবেক খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা ও নাট্য ব্যক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী রফিকুল আলম প্রমুখ।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ