ভারত যেটা করে দেখাচ্ছে তার চেয়ে বহু দূরে আমরা!

প্রকাশিতঃ ৮:১২ অপরাহ্ণ, বুধ, ২৫ ডিসেম্বর ১৯

ডা. জয়নাল আবেদীন :

আপনাদের দেশপ্রেম, দেশাত্মবোধ, জাতীয়তাবাদ ও ধর্মীয় চেতনার প্রতি সম্মান রেখেই বলছি…ইন্ডিয়া/ভারত/হিন্দুস্থান/রেন্ডিয়া… এই বাংলাদেশ থেকে এখনো বহুগুণ বেশি সভ্য।

মানবেন না?

জামিয়ায় হামলার পর সে ভার্সিটির ভিসির প্রতিক্রিয়া দেখেছেন?

দেখেছেন কতজন বলিউড স্টার জামিয়ায় হামলার নিন্দা জানিয়েছে?

দেখেছেন ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধা সাবেক ভিসি কীভাবে শিড়দাড়া শক্ত করে দাঁড়িয়ে আছেন পুলিশ ব্যারিকেডের সামনে?

দেখেছেন ব্যাঙ্গালোর পুলিশ “ছাত্রদের মারতে পারব না” বলে নিজেরাই প্ল্যাকার্ড হাতে বসে পড়ছে আন্দোলনে?

দেখেছেন শিখ-হিন্দুদের পাহারায় মুসলিমরা নামাজ পড়েছে দিল্লীতে?

দেখেছেন যাদবপুর ইউনিভার্সিটির স্বর্ণপদক পাওয়া হিন্দু ছাত্রী মেডেল নেয়ার আগে স্টেজে ছিঁড়েছে মুসলিম বিরোধী সিএবি মেনিফেস্টো?

দেখেছেন দেশের সংখ্যালঘুর সম্মান রক্ষায় ধর্ম-বর্ণ-দলমত নির্বিশেষে উত্তাল হয়ে উঠেছে পুরো ভারতবর্ষ?

আপনি হয়তো দেখেননি বা দেখলেও স্বীকার করবেন না। আপনি কেবল দেখেন মোদি-অমিত শাহ, বিএসএফ-গরুর মুত্র-বিজেপি-আরএসএস-শিবসেনা।

হ্যাঁ, উপরোক্ত কোনোটাই অবাস্তব না, সবটাই দৃশ্যমান সত্য। কিন্তু ভারতবর্ষের মানুষ অন্তত এটা প্রমাণ করতে পেরেছে তাদের দেশের সবাই মোদি না, সবাই বিজেপি-শিবসেনা না। অন্ধকারের বিপরীতে আলোটাও সেখানে স্পষ্ট।

আপনার দেশের অন্ধকারের বিপরীতে আলো কই? আর যদি কোথাও মিটমিটে আলো দেখা যায় সেটাকে ঢেকে দেয়ার জন্য কত হাজার আয়োজন করে রাখা হয়।

আপনি ভারত বিরোধী হতে পারেন, ভারতকে সবচেয়ে ঘৃণাও করতে পারেন…আপত্তি নেই। তবে এটা অন্তত স্বীকার করুন আমরা শুদ্ধ নই। আজকে ভারত যেটা করে দেখাচ্ছে তারচেয়ে বহু দূরে আমরা এখনো পড়ে আছি।

এক দেশ, এক ভাষা, এক বর্ণ…তবুও একজনকে মারতে আরেকজনের ন্যূনতম দ্বিধা কাজ করে না, একেকটা অন্যায়ের প্রতিক্রিয়ায় মাথা আরো বেশি ঢুকে পড়ে এমপি-থ্রি আর প্রফেসরসের কাগজ বালুতে, নির্লজ্জ-স্বার্থপর পাষাণ কিংবা ভীতু হতে হতে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছি আমরা।

যাক, ভারতের স্তুতি আমি গাইছি না। নিজেদের চেহারা দেখানোর চেষ্টা করলাম। জানি অনেকেরই গাত্রদাহ হবে তাতে। নিজেরা নরকের চৌদ্দ পাতাল নিচে পড়ে থাকলেও কী হবে, দেশপ্রেম ও ধর্মপ্রেম দেখানোর জন্য গালি দিতে ভারত তো আছেই।

কী সব বলেছি। ভুলে যান সব। আমরা সেরা, আমরা বীরের জাতি। এ দেশের ধূলো কণা সোনার চেয়েও দামী। ভারত খারাপ। তাদের সবচেয়ে বড়ো প্লেয়ার বিরাট কোহলী বিশাল মাত্রার বেয়াদব।

জয় বাংলা- বাংলাদেশ জিন্দাবাদ।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ