ভোট প্রদানে যে বিষয়টিকে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন মার্কিনীরা

প্রকাশিতঃ ১০:০৫ পূর্বাহ্ণ, বুধ, ৪ নভেম্বর ২০

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটের ফলাফল প্রকাশ হতে শুরু করেছে। ডেমোক্র্যাট জো বাইডেন ও রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে শেষ পর্যন্ত কে হোয়াইট হাউসের মসনদে বসবেন তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আর কিছুটা সময়।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এখন পর্যন্ত এগিয়ে রয়েছেন ডেমোক্র্যাট জো বাইডেন। সবশেষ ভোটের ফলাফলে ৫৩৮টি ইলেকট্ররাল কলেজ ভোটের মধ্যে বাইডেন ১৩১ ও প্রতিদ্বন্দ্বী রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্প ৯২ ভোট পেয়েছেন।

জয়ের জন্য কমপক্ষে ২৭০টি ইলেকট্ররাল কলেজ ভোট পেতে হবে প্রার্থীকে। বিভিন্ন বুথ ফেরত জরিপে, ব্যাটেলগ্রাউন্ড রাজ্যগুলোতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে আভাস মিলেছে।

ফ্লোরিডা, পেনসিলভ্যানিয়া, টেক্সাসের মতো বড় রাজ্যগুলোতে এরইমধ্যে দুই প্রার্থীর মধ্যে শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস পাওয়া গেছে।

এদিকে বুথ ফেরত জরিপ বলছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোট দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণে দেশের অর্থনীতিকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন মার্কিনীরা।

এডিসন রিসার্সের ওই জরিপে বলা হয়, ৩৪ শতাংশ ভোটার অর্থনীতিকে, ২১ শতাংশ বর্ণ বৈষম্য ও ১৮ শতাংশ ভোটার করোনা মহামারিকে গুরুত্ব দিয়েছেন।

এদিকে ভোট চলার মধ্যেই পেনসিলভেইনিয়ার ফিলাডেলফিয়ায় সমর্থকদের সামনে হাজির হন বাইডেন। যুক্তরাষ্ট্রে ইতিহাসে এবার রেকর্ড সংখ্যক ভোট পড়বে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

অন্যদিকে ‘ফক্স অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’ টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে জয় নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করতে রাজি নন ট্রাম্প। বলেন, জয় আসলেই নিজেকে বিজয়ী ঘোষণা করবেন তিনি।

এ বছর প্রায় দশ কোটি ভোটার ডাকযোগে আগাম ভোট দিয়েছেন, যা দেশটির ইতিহাসে নতুন রেকর্ড। কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে ভিড় এড়াতেই ডাকযোগে ভোটের সংখ্যা বেড়েছে।

তবে ডাকযোগে ভোট গণনা নিয়ে এরইমধ্যে তৈরি হয়েছে দ্বন্দ্ব। প্রায় ৩ লাখ ব্যালট পেপার এখনও গণনার আওতায় আসেনি বলে জানিয়েছে মার্কিন পোস্টাল সার্ভিস। এ অবস্থায় নির্বাচন কমিশনে ব্যাটল পেপার পৌঁছানো ও গণনা শেষ হতে কয়েকদিন সময় লেগে যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সব মিলিয়ে কখন চূড়ান্ত ফল পাওয়া যাবে তা নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকছে এবারের নির্বাচনে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।