মাটির ব্যাংকে জমানো টাকা দিয়েই অসহায়দের পাশে ইবি ছাত্রলীগ নেতা

প্রকাশিতঃ ৭:৪৭ অপরাহ্ণ, বুধ, ১ এপ্রিল ২০

আজাহার ইসলাম, ইবি : মহামারি করোনাভাইরাসে আতঙ্কিত গোটা বিশ্ব। চায়ের কাপ থেকে মন্ত্রীসভা পর্যন্ত আলোচনার শীর্ষে করোনাভাইরাস। বিশ্বে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এ ভাইরাস। বিস্তার রোধে লকডাউন চলছে দেশে দেশে। অনেক দেশেই অন্ন বস্ত্রের কথা না ভেবেই লকডাউন করা হয়েছে। ফলে সংসার কীভাবে চলবে তা নিয়ে উৎকণ্ঠায় দিন পার করছেন খেঁটে খাওয়া দিনমজুর-অসহায় মানুষেরা।

দেশে সবার মতো করোনাভাইরাস মোকাবেলায় অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) ছাত্রলীগের সাবেক ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান লালন। তিনি নিজের মাটির ব্যাংকে জমানো টাকা দান করেছেন অসহায় মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য।

জানা যায়, তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে আদর্শিত হয়ে নানা উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্ত রেখেছেন নিজেকে। এরই ধারাবাহিকতায় করোনায় গৃহবন্দি থাকা খেঁটে খাওয়া অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে মাটির ব্যাংকে জমানো টাকা বিলিয়ে দিয়েছেন তিনি। তার ব্যাংকে বছর ধরে জমানো টাকার পরিমাণ ছিলো ২ হাজার ৬৭২ টাকা।

এর আগে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বিনামূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্ক এবং জীবাণুনাশক স্প্রে বিতরণসহ নানা সামাজিক কর্মকাণ্ডের সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করে রেখেছেন তিনি।

এবিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হিসেবে ও সামাজিক দায়বদ্ধতার জায়গা থেকে আমি অসহায়দের পাশে দাঁড়িয়েছি। সকলে নিজ নিজ জায়গা থেকে গৃহবন্দি খেঁটে খাওয়া মানুষদের পাশে দাঁড়ানো উচিত। দেশের এমন সংকটময় মুহুর্তে সবার সম্মিলিত সহযোগিতায় পারে অসহায়দের মুখে হাঁসি ফোটাতে।’

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ