মাদক আর সন্ত্রাস অতপ্রোতভাবে জড়িত : নুর মোহাম্মদ

প্রকাশিতঃ ১:২৮ অপরাহ্ণ, রবি, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০

মাদক থেকেই সকল বিপর্যয়ের সূচনা। মাদকসক্তরা স্বভাবতই সন্ত্রাসে জড়িয়ে পড়ে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক এমপি ও বাংলাদেশ এন্টি ড্রাগ ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট নূর মুহাম্মদ।

রোববার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত “মাদককে রুখবো আজ, গড়বো সুন্দর সমাজ” শীর্ষক দিনব্যাপী কর্মশালায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও দ্যা বাংলাদেশ এন্টি ড্রাগ ফেডারেশন আয়োজিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জনাব মো. জামাল উদ্দিন আহমেদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্থাটির পরিচালক মু. নুরুজ্জামান শরীফ, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ম. কামরুল হাসান, দ্যা বাংলাদেশ এন্টি ড্রাগ ফেডারেশনের প্রধান উপদেষ্টা খবির উদ্দিন আহমেদ ও সংগঠনটির সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম এবং মহিউদ্দিন হেলাল।

বাংলাদেশ এন্টি ড্রাগ ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট নূর মুহাম্মদ আরও বলেন, পরিবারের একজন সদস্যও মাদকাসক্ত হয়, তাহলে পুরো পরিবারের শান্তি-শৃঙ্খলা বিনষ্ট হয়ে যায়। পরিবারের সবার মান-সম্মান হুমকির মুখে পড়ে। সকল অর্জন ব্যর্থ হয়ে যায়।

তিনি বলেন, মাদকসেবীরা একা-একা মাদক নিতে চায় না। তারা সঙ্গী খোঁজেন। তাই শুধু নিজের ঘরকে মাদকমুক্ত রাখলে চলবে না। আপনার পাশের ঘরে যদি মাদক প্রবেশ করে, তাহলে আপনি ও আপনার পরিবারও অনিরাপদ হয়ে পড়বেন।

মাদক থেকে ফিরিয়ে আসা তরুণ তরুণীদের কর্মসংস্থানের উদ্যোগ নেয়ার ঘোষণা দিয়ে সাবেক এমপি নুর মোহাম্মদ বলেন, এরফলে সংশ্লিষ্ট পরিবারের অভাব দূর হবে। সেইসঙ্গে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ভিত সুদৃঢ় হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

দেশব্যাপী মাদক নিয়ন্ত্রণে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ও বাংলাদেশ এন্টি ড্রাগ ফেডারেশন যৌথভাবে কাজ করে যাবে বলে ঘোষণা দেন তিনি। কারণ, কাজটা সরকারের একার নয়। আমরা সকলে যদি হাত বাড়াই, তবেই সাফল্য আসা সম্ভব।

দিনব্যাপী কর্মশালায় বিষয়ভিত্তিক আলোচক ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ডাক্তার কৃঞ্চা রুপা মজুমদার, কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রের আবাসিক মনোচিকিৎসক ডা. রাহানুল ইসলাম, কবি ও গবেষক ইমরান মাহফুজ, ক্যারিয়ার বিশেষজ্ঞ কে এম হাসান রিপন, বিশিষ্ট টিভি ব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিক নাদিম কাদির ও হাসিবুল ইসলাম।

কর্মশালায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ক্যাম্পাস ভিত্তিক মাদকবিরোধী আন্দোলনের মূখ্য সমন্বয়কারী ও দ্যা বাংলাদেশ এন্টি ড্রাগ ফেডারেশনের জেনারেল সেক্রেটারি রফিকুল ইসলাম রলি ও জয়েন্ট সেক্রেটারী ইরফান আহমেদ। আরো উপস্থিত রয়েছেন সংগঠনটির কালচারাল এন্ড পাবলিকেশন্স সেক্রেটারি শিরীনা বিথী।

কর্মশালায় শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে নির্বাচিত দুই শতাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ