মাদক নিরাময় কেন্দ্রগুলোতে অভিযানে নারকোটিক্স

প্রকাশিতঃ ১০:০২ পূর্বাহ্ণ, শুক্র, ১৩ নভেম্বর ২০

মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রগুলোর অনিয়মের বিরুদ্ধে অভিযানে নেমেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর (নারকোটিক্স)।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার অনলাইনে জরুরি মিটিং করে সংশ্লিষ্টদের কড়া নির্দেশনা দিয়েছেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের মহাপরিচালক আহসানুল জব্বার। নির্দেশনা অনুযায়ী দেশব্যাপী শুক্রবার সকাল থেকে একাধিক টিম মাঠে নেমেছে। কোথাও কোনো অনিয়ম পরিলক্ষিত হলে লাইসেন্স বাতিলসহ আইনানুগ ব্যবস্থা নেবেন তারা। শুরু হওয়া সাঁড়াশি অভিযান মহাপরিচালক নিজেই মনিটরিং করবেন বলে জানা গেছে।
ওই মিটিং থেকে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের জানিয়ে দেয়া হয়।

এ বিষয়ে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের চিকিৎসা পুনর্বাসন শাখার পরিচালক মু. নুরুজ্জামান শরীফ জানান, লাইসেন্সপ্রাপ্ত নিরাময় কেন্দ্রগুলোর অনিয়ম ক্ষতিয়ে দেখতে ইতোমধ্যে মহাপরিচালক নির্দেশনা দিয়েছেন।

এজন্য একাধিক টিম গঠন করে দেয়া হয়েছে। প্রতিটি নিরাময় কেন্দ্র সরেজমিনে পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সেবা মানসম্পন্ন না হলে কোন কেন্দ্র চলতে পারবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

সূত্র জানায়, রাজধানীতে মোট ১০৫টি নিরাময় কেন্দ্র লাইসেন্সপ্রাপ্ত। এর মধ্যে হাতেগোনা কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে সেবার মান সন্তোষজনক। বাকিগুলোতে সেবা বলতে তেমন কিছুই নেই। এমনকি অনেক কেন্দ্রের বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসা ও রোগীদের ওপর নির্যাতন চালানোর প্রমাণিত অভিযোগ রয়েছে।

রাজধানী ছাড়া জেলা শহরগুলোতে যেসব কেন্দ্র রয়েছে সেগুলোর অবস্থা আরও খারাপ। বহু নিরাময় কেন্দ্র মাদকাসক্তির চিকিৎসার নামে মানসিক রোগের চিকিৎসা শুরু করেছে। যথাযথ পর্যবেক্ষণের অভাবে লাইসেন্স ছাড়াই ব্যাঙের ছাতার মতো পাড়া-মহল্লায় এ ধরনের নিরাময় কেন্দ্র গজিয়ে উঠেছে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের ঢাকা মেট্রো উপ-অঞ্চলের উপ-পরিচালক মুকুল জ্যোতি চাকমা বলেন, লোকবলের সীমাবদ্ধতার কারণে নিরাময় কেন্দ্রগুলো যথাযথভাবে পর্যবেক্ষণ করা যায় না। এ সুযোগে অনেক প্রতিষ্ঠান নানা ধরনের অনিয়ম করে যাচ্ছে। সরেজমিন পরিদর্শন করে যে সব প্রতিষ্ঠানে অনিয়ম পাওয়া যাবে সেগুলো বন্ধ করে দেব।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।