মাস্ক পরে নিজেকে সেরা দেশপ্রেমিক দাবি করলেন ট্রাম্প

প্রকাশিতঃ ১:৫৫ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ২১ জুলাই ২০

করোনাভাইরাসকে বরাবরই ‘চীনা ভাইরাস’ বলে আসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর এ নিয়ে জলঘোলাও কম হয়নি। চীনও এর প্রতিবাদ জানিয়েছে। তবে এতেও নাছোড়বান্দা ট্রাম্পের মুখ সামলানো সম্ভব নয়।

আবারও করোনাকে ‘চীনা ভাইরাস’ আখ্যায়িত করে এবার মাস্ক পরে টুইটারে হাজির ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে দাবি করলেন, তাঁর মতো দেশপ্রেমিক আর কেউ নয়। যদিও করোনা সংক্রমণের শুরুর দিকে মাস্ক না পরায় সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন ট্রাম্প।

আজ মঙ্গলবার টুইটবার্তায় ট্রাম্প লেখেন, ‘অদৃশ্য চীনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমরা আমাদের চেষ্টার মাধ্যমে সংযুক্ত রয়েছি।’

এরপরই ট্রাম্প লেখেন, ‘অনেকে বলেন, যেখানে আপনি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে পারছেন না, সেখানে ফেসমাস্ক পরা হলো দেশপ্রেম। আপনাদের প্রিয় প্রেসিডেন্ট—আমার চেয়ে দেশপ্রেমিক আর কেউ নয়।’

টুইটের সঙ্গে জুড়ে দেওয়া ছবিতে দেখা যাচ্ছে, ট্রাম্প একটি ফেসমাস্ক পরে আছেন। চলতি মাসের শুরুতে ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিকেল সেন্টার পরিদর্শনের সময় মাস্ক পরে গিয়েছিলেন ট্রাম্প। সেখানে প্রথমবার ট্রাম্পকে মাস্ক পরা অবস্থায় দেখা গেছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

এর আগে অনেকবারই জনসমাগমে ট্রাম্পকে মাস্ক ছাড়া দেখা গিয়েছিল। এমনকি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে অন্যরা সবাই মাস্ক পরে থাকলেও ট্রাম্পকেই দেখা গেছে মাস্ক ছাড়া। চারপাশে সংবাদকর্মীদের আনাগোনা আর সমালোচনা হলেও ট্রাম্প তাতে ভ্রুক্ষেপ করেননি। সেই ট্রাম্পই এবার ফেসমাস্ক পরার ছবি টুইটারে দিয়ে এর গুরুত্ব জানান দিলেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।