মাহবুবুল এ খালিদের গানে খুশির ঈদ

প্রকাশিতঃ ৬:২৫ অপরাহ্ণ, সোম, ২৫ মে ২০

বিনোদন ডেস্ক: সিয়াম সাধনার মাস রমজান শেষে এলো খুশির ঈদ। ঈদ মানে খুশি। ঈদ মানে আনন্দ। আর ঈদের খুশিতে অনন‌্য মাত্রা যোগ করেছে ‘ঈদ এলো রে’ শিরোনামের গানটি। এটি লিখেছেন গীতিকার ও সুরকার মাহবুবুল এ খালিদ। গানটির সুর করেছেন প্রয়াত জনপ্রিয় সুরকার ও সংগীত পরিচালক আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল। কণ্ঠ দিয়েছেন ক্ষুদে গানরাজখ‌্যাত নওশীন তাবাসসুম স্মরণ এবং সেরা কণ্ঠের রাফসান মান্নান।

ঈদুল ফিতরের এ গানটি মাহবুবুল এ খালিদের সংগীত বিষয়ক ওয়েবসাইট ’খালিদসংগীত ডটকম’ (www.khalidsangeet.com)-এ প্রকাশ করা হয়েছে। গানটি ওয়েলকাম টিউন হিসেবে সেট করা যাবে। এজন‌্য রবির গ্রাহকদের ডায়াল করতে হবে *৮৪৬৬*৩০১# অথবা *২৮৪৬৬*৩০১# এবং এয়ারটেল গ্রাহকদের *৭৮৮*২৬২# অথবা *২২৭৮৮*২৬২#।

এ প্রসঙ্গে গীতিকার মাহবুবুল এ খালিদ বলেন, মাসব‌্যাপী সিয়াম সাধনার পর ঈদুল ফিতর নিয়ে আসে খোদার রহমত। ঈদের খুশিতে মেতে ওঠেন সবাই। ঘুচে যায় ধনী-গরীব ব‌্যবধান। সবাই এক কাতারে ঈদের নামাজ আদায় করেন। ঝগড়া-বিবাদ ভুলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। আর এর মাধ্যমেই ঈদুল ফিতরের সত্যিকার তাৎপর্য নিহিত। আশা করি গানটি সবার ভালো লাগবে।

তিনি আরো বলেন, করেনাভাইরাস মহামারির কারণে আমরা কঠিন সময় পার করছি। এবার ঘরেই ঈদ উদযাপন করতে হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে ঈদ সবার মাঝে নিয়ে আসুক খোদার রহমত। কেটে যাক সব দুর্যোগ। এই ঈদে এটাই হোক আমাদের প্রার্থনা।

উল্লেখ‌্য, কবি, গীতিকার ও সুরকার মাহবুবুল এ খালিদ বিভিন্ন ধর্মীয়, সামাজিক, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক উৎসব নিয়ে গান লিখেছেন। তার গান ও কবিতা মানবপ্রেমের মহৎ বাণীতে সমৃদ্ধ। যা মানুষকে অনুপ্রেরণা দেয়, পথ দেখায়। মানুষকে পরিচালিত করে সত্য ও সুন্দরের দিকে।

‘ঈদ এলো রে’ ছাড়াও পবিত্র রমজান মাস নিয়ে তিনি গান লিখেছেন। যার শিরোনাম ‘আবার এসেছে রমজান’। তিনি গান লিখেছেন মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব শবে কদর, শবে মেরাজ, শবে বরাত, ঈদে মিলাদুন্নবী এবং কোরবানি নিয়ে। মাহবুবুল এ খালিদ রচিত এসব গানে সংশ্লিষ্ট দিবস ও উৎসবের উপলক্ষ্য ও তাৎপর্য ফুঁটে ওঠে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।