মেলবোর্নে হোয়াইটওয়াশ শ্রীলঙ্কা

প্রকাশিতঃ ৮:০৬ অপরাহ্ণ, শুক্র, ১ নভেম্বর ১৯

স্পোর্টস ডেস্ক: সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে সেঞ্চুরি। দ্বিতীয় ম্যাচে খেললেন ৬০ রানের ইনিংস। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের শেষ টোয়েন্টিতেও হাসলো ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যাট। তার ৫৭ রানের ওপর ভর করে সফরকারী লঙ্কানদের ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ করলো অস্ট্রেলিয়া। শেষ টি-টোয়েন্টিতে ৭ উইকেটের জয় তুলে নিয়েছে অজিরা।

তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের একটিতেও ওয়ার্নারের উইকেট উদযাপন করতে পারেনি লঙ্কানরা। কেবল তাই নয়, মেলবোর্নে ব্যাটিংয়ে নেমে অজি ওপেনার স্পর্শ করেছেন টি-টোয়েন্টিতে ২ হাজার রানের মাইলফলক। ২৪৫০ রান নিয়ে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ রানের মালিক বিরাট কোহলি। ২০০৯ রান নিয়ে ওয়ার্নার আছেন এই অভিজাত তালিকার ছয় নাম্বারে।

এছাড়া প্রথম কোনো অস্ট্রেলিয়ান হিসেবে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এই তালিকায় জায়গা পেলেন তিনি। গত ১৮ টি-টোয়েন্টিতে ১৪৪.৫০ গড়ে রান সংগ্রহ করেছেন ওয়ার্নার। যার মধ্যে আছে ১২ ফিফটি ও ২ সেঞ্চুরি।

মেলবোর্নে (০১ নভেম্বর) টসে জিতে লঙ্কানদের ব্যাটিংয়ে পাঠায় অস্ট্রেলিয়া। সিদ্ধান্তটা যে সঠিক, তা প্রমাণ করতে বেশিক্ষণ সময় নেয়নি অজি বোলারা। দলীয় ৩ রানের মাথায় নিরোশান দিকভেলাকে গোল্ডেন ডাক উপহার দেন মিচেল স্টার্ক। বিপর্যয় সামাল দেওয়ার আগেই কুশল মেন্ডিসকেও (১৩) হারায় লঙ্কানরা।

লঙ্কানদের ম্যাচে ফেরান কুশল পেরেরা ও অভিষেক ফার্নান্দো। ফার্নান্দো ২০ রানে ফিরলেও ফিফটি তুলে নেন পেরেরা। ৪৫ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৫৭ রানে তিনি সাজঘরে ফিরেন প্যাট কামিন্সের বলে। এরপর আর কেউ দলের হাল ধরতে পারেননি। ওশাদা ফার্নান্দো ৬ ও জেহান জয়াসুরিয়া ১২ রান নিয়ে ফেরেন দ্রুত। শেষদিকে ভানুকা রাজাপাকসে ১১ বলে অপরাজিত ১৭ এবং লাসিথ মালিঙ্গা ৪ বলে ১ ছয়ে অপরাজিত থাকেন ৮ রানে। তাদের কল্যাণে ৬ উইকেটে ১৪২ রানের সংগ্রহ পায় শ্রীলঙ্কা।

স্টার্ক, কেন রিচার্ডসন ও কামিন্স নেন দুইটি করে উইকেট।

জবাব দিতে নেমে জয়ের জন্য কোনো বেগ পেতে হয়নি অস্ট্রেলিয়াকে। ওপেনিং জুটিতেই ৬৯ রান তুলে নেয় তারা। অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চকে (৩৭) ফিরিয়ে ওপেনিং জুটি ভাঙেন লাহিরু কুমারা। তবে আরেক ওপেনার ওয়ার্নার তুলে নেন ফিফটি। তার ৫০ বলে অপরাজিত ৫৭ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৪ চার ও ১ ছক্কায়।

এছাড়া স্টিভেন স্মিথের ব্যাট থেকে ১৩ এবং বেন ম্যাকডারমট আউট হন ৫ রানে। ওয়ার্নার অস্ট্রেলিয়াকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন অ্যাশটন টার্নার (২২) সঙ্গে নিয়ে। ১৭.৪ ওভারে ৩ উইকেটে ১৪৫ রান করে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে অস্ট্রেলিয়া।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ এবং ম্যান অব দ্য সিরিজের দুই পুরস্কারই ওঠেছে ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ