রাজশাহীতে লবণ কেলেঙ্কারিতে ৮ জনের কারাদণ্ড

প্রকাশিতঃ ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ, বুধ, ২০ নভেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: রাজশাহীতে কৃত্রিম সংকট তৈরি করে বাড়তি দামে লবণ বিক্রির অপরাধে মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৮ জনকে এক বছর করে কারাদণ্ড ও মোট ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত শেষে রাতে রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে বিকাল থেকে লবণ নিয়ে গুজব রোধে মাঠে নামে জেলা প্রশাসন।

রাজশাহী শহরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু আসলাম। অপরদিকে, রাজশাহী উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) লবণ সংকটের গুজব প্রতিরোধে মাঠে নামেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে জেলা উপজেলা এবং থানা পর্যায়ের হাট-বাজারগুলোতে গিয়ে সরেজমিনে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হয়।

এ সময় অবৈধভাবে লবণ গুদামজাত অতিরিক্ত লবণ কিনে কৃত্রিম সংকট তৈরির জন্য আটজনকে ১ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয় এবং মোট ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এছাড়া নগরীর সাহেববাজার এলাকা থেকে দুইজনকে আটক করা হয় পরে জরিমানা আদায় করে তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

রাজশাহী জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরও মহানগরীর কাঁঠালবাড়িয়া ও কাশিয়াডাঙ্গা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এতে চার ব্যক্তিকে ৫৫ হাজার টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তর। অভিযানের পর রাজশাহী ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক হাসান মারুফ সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

অভিযান পরিচালনাকালে রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু আসলাম জানান, বাজারে লবণের কোনো ঘাটতি বা সংকট নেই। বরং চাহিদার তুলনায় উদ্বৃত্ত আছে৷ লবণ নিয়ে এটা এক ধরণের গুজব। এ সময় তিনি প্রয়োজনের চেয়ে বেশি লবণ না কেনার পরামর্শ দেন। আর কোথাও দাম বেশি চাইলে সরাসরি জেলা প্রশাসনকে জানানোর অনুরোধ করেন। প্রয়োজনে জাতীয় জরুরী সেবা ‘৯৯৯’ নম্বরে ফোন দেওয়ার পরামর্শও দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ