লক্ষ্মীপুরে নারী ও শিশুদের জন্য হেল্পডেস্ক চালু

প্রকাশিতঃ ১০:০৫ অপরাহ্ণ, সোম, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে যৌতুক,নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে উইমেনস সার্পোট সেন্টার নামে আলাদা হেল্প ডেক্স চালু করে সেবা দিয়ে যাচ্ছে জেলা পুলিশ। নির্যাতিতরা দির্ঘমেয়াদি ঝামেলা এড়িয়ে কম সময়ে এখান থেকে দ্রুত সেবা পেয়ে খুশি। পুলিশ সুপার বলছেন, পারিবারিক ও গ্রাম্য বিরোধ নিষ্পত্তির এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে সাধারন মানুষ। ব্যাপক সাড়া পাওয়া গেছে। এটি একটি ইতিবাচক দিক। শুধু আট মাসে ১৬৬টি অভিযোগ নিষ্পত্তি করা হয়েছে বলে দাবী করেন পুলিশের এ কর্মকর্তা।

সমাজে ঘটে যাওয়া ছোট ছোট বিষয় গুলো যাতে বৃহৃৎ আকার ধারন করতে না পারে সেদিকে লক্ষ্য রেখে লক্ষ্মীপুর পুলিশ অফিসে চালু করা হয়েছে যৌতুক,নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে উইমেনস সার্পোট সেন্টার নামে আলাদা হেল্প ডেক্স। গত দুই বছরে এখানে সহায়তা নিয়েছে ১ জাহার জন নির্যাতিত নারী। আর গত আট মাসে নিষ্পত্তি করা হয়েছে ১৬৬টি অভিযোগ। আর এসব অভিযোগ সমাধান হয়েছে এই হেল্প ডেস্ক থেকে। সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করেন একজন নারী পুলিশ পরিদর্শক। অভিযোগ গ্রহণকারী নারী হওয়ায় সহজেই নারীরা তাদের সমস্যার কথা বলতে পারেন এখানে। প্রতিদিনই হেল্প ডেস্কে এসে নারীরা তাদের নির্যাতনের বনর্ণা খুলে বলতে পারেন। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে উভয় পক্ষকে ডেকে সমঝোতার মাধ্যমে করা হচ্ছে সমাধান। এসব অসহায় নারীরা বেশির ভাগই যৌতুক, সামাজিক বিরোধ ও পারিবারিক নির্যাতনের স্বীকার।

সাপোর্ট সেন্টারের মাধ্যমে যৌতুক,নির্যাতন ও পারিবারিকসহ যে কোন বিষয়ে সহজে সমাধান হয়। এছাড়া অন্য কোন স্থানে বিচার দিয়ে পাওয়া যায়না বলে অভিযোগ করেন তারা। ইউমেনস সাপোর্ট সেন্টারের মাধ্যমে কোন হয়রানীর পড়তে হয়না। ছোটখাট পারিবারিক বিরোধ গুলো পুলিশ অফিসে নিষ্পত্তি হওয়ায় সাধুবাদ জানিয়েছেন, নির্যাতিত নারী ও স্বজনরা।
অভিযোগের প্রেক্ষিতে উভয়কে ডাকানো হয়। নারী হওয়ায় আরেকজন নারী তার সমস্যার কথা খুলে বলতে পারে। যেগুলো এখানে সমাধান সম্ভব হয় না সেগুলো থানায় অথবা আদালতে প্রেরন করা হয়।

পুলিশ সুপার বলছেন,পারিবারিক ও গ্রাম্য বিরোধ নিষ্পত্তির এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে সাধারন মানুষ। ব্যাপক সাড়া পাওয়া গেছে। এটি একটি ইতিবাচক দিক। শুধু আট মাসে ১৬৬টি অভিযোগ নিষ্পত্তি করা হয়েছে। সে সকল অপরাধ প্রচলিত আইনে মামলা হতে পারতো সেগুলোকে প্রাথমিক ভাবে এখান থেকেই সমাধান করা হয় বলে দাবী করেন পুলিশের এ কর্মকর্তা।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ