লক্ষ্মীপুরে শিশুর শরীরে ‘বিষাক্ত ইনজেকশন’ পুশ

প্রকাশিতঃ ৭:৩৯ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৫ জুন ২০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরে হাবিবুর রহমান নামে দেড় বছরের শিশুর শরীরে ‘বিষাক্ত ইনজেকশন’ পুশ করার ঘটনার মামলায় আসামি খুকি বেগমের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

শুক্রবার (৫ জুন) বেলা ১১ টার দিকে সদর উপজেলার মাছিমনগর এলাকায় লক্ষ্মীপুর-রামগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের দুপাশে মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। এসময় শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করে এলাকার লোকজন এ কর্মসূচিতে অংশ নেয়।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন মামলার বাদী শিশু হাবিবের দাদা লাতু মিয়া, দাদি রহিমা বেগম ও সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক জাফর আলম জয়সহ অর্ধশতাধিক এলাকাবাসী।

জানা গেছে, নাতি হাবিবের শরীরে ‘বিষাক্ত ইনজেকশন’ দেওয়ার অভিযোগে দাদা লাতু মিয়া ২৮ মে সন্ধ্যায় সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। এতে খুকি বেগম একমাত্র আসামি। রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে সদর উপজেলার চর পার্বতীনগর গ্রামের বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে। খুকি ওই গ্রামের আবুল কাশেমের স্ত্রী। খুকি বর্তমানে জেলা কারাগারে রয়েছে।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, খুকি হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে অবুঝ শিশু হাবিবের শরীরে বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করেছে। তাকে পুলিশ গ্রেফতার করার পর থেকে ভূক্তভোগী পরিবারকে বিভিন্নভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে খুকির ফাঁসির দাবি জানায় তারা।

প্রসঙ্গত, শিশু হাবিব একই গ্রামের মো. নুর নবীর ছেলে। অভিযোগ রয়েছে, গত ১১ মে বিকেলে কৌশলে শিশুটিকে ঘরে নিয়ে খুকি বেগম তিনটি বিষাক্ত ইনজেকশন পুশ করে। পরে চিৎকার শুনে মা শামছুননাহার শিশুটিকে খুকির ঘর থেকে উদ্ধার করে। ওইদিনই শিশুর দাদি রহিমা বেগম থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। পরে ২৭ মে রহিমা বেগম থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। বর্তমানে শিশুটি ঢাকা মেডিকেল কলেজের আইসিওতে চিকিৎসাধীন আছে। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে ভূক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, দিনদিন শিশুটির অবস্থার অবনতি হচ্ছে।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।