লাদাখে সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে মোদির সর্বদলীয় বৈঠক

প্রকাশিতঃ ৭:৩৮ অপরাহ্ণ, বুধ, ১৭ জুন ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : লাদাখের পরিস্থিতি নিয়ে ১৯ জুন শুক্রবার বিকালে সর্ব দলীয় বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সীমান্ত নিয়ে দু’দেশের মধ্যে সেনা পর্যায়ের বৈঠকের সময়ই যেভাবে সোমবার রাতে দু’দেশের বাহিনীর মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে, তাতে কেন্দ্র যে কঠোরভাবে মোকাবিলা করতে চায় তা ইতোমধ্যেই স্পষ্ট করা হয়েছে। এই অবস্থায় সমস্ত বিরোধী দলগুলোকে নিয়ে সহমতের ভিত্তিতেই দেশ যে এগোবে সে বার্তায় দিয়েছেন মোদি।

বুধবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর অফিস থেকে জানানো হয়েছে, সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে শুক্রবার বিকেলে সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা হয়েছে। সম্ভবত ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই বৈঠক করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এদিকে, চীনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে প্রাণ বলিদান দিয়ে দেশের জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগ শিকার করেছেন জওয়ানরা। নিহত জওয়ানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। বুধবার এক টুইট বার্তায় রাজনাথ সিং জানিয়েছেন, গালওয়ান উপত্যকায় জওয়ানদের মৃত্যু অত্যন্ত বেদনাদায়ক। সীমান্তে প্রহরারত অবস্থায় দেশের জওয়ানরা সাহসিকতা এবং বীরত্বের পরিচয় দিয়েছেন। দেশ তাদের বীরত্ব এবং আত্মত্যাগ কোনওদিন ভুলবে না।

পাশাপাশি, নিহত জওয়ানদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। বলেছেন, এই কঠিন সময়ে দেশ তাদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়াবে। ভারতের সাহসী হৃদয়গুলির সাহসিকতায় গর্বিত দেশবাসী।

এদিকে লাদাখে চীনা সৈনিকদের সঙ্গে সংঘর্ষে ভারতীয় জওয়ানদের নিহত হওয়ার ঘটনায় এর আগেই, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিশানা করেছেন কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী। ভারত ও চীনের মধ্যে যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হওয়া সত্ত্বেও নমো কেন এখনও নীরব, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। লাদাখের গলওয়ান উপত্যকায় চীনা সৈনিকদের সঙ্গে সংঘর্ষে জখম চার ভারতীয় জওয়ানের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছে সূত্র। এর আগে, ভারতীয় সেনার তরফে জানানো হয়, সংঘর্ষে নিহত হয়েছে ২০ জন জওয়ান। ৪৩ জন চীনা সৈনিকও মৃত বা আহত হয়েছে বলে জানানো হয়েছিল।

উত্তেজনা ক্রমশ বেড়ে চলায় শ্রীনগর-লেহ হাইওয়ে জনসাধারণের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের গাড়ি ছাড়া সব যানবাহনের চলাচলের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ এবং সেনাবাহিনীর তিন ক্ষেত্রের প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। উদ্ভুত পরিস্থিতি নিয়ে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকরের সঙ্গেও কথা বলেছেন।

অন্যদিকে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় নিহত ভারতীয় সেনার তালিকায় রয়েছেন দুই বাঙালিও। এদের একজনের বাড়ি বীরভূমে, অন্যজনের আলিপুরদুয়ারে। দেশের জন্য কাজ করার স্বপ্ন নিয়ে সেনায় যোগ দিয়েছিলেন দুজনে।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।