শিরিনা বিথীর কবিতা অপ্রত্যাশিত প্রস্থান

প্রকাশিতঃ ৭:১১ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২ এপ্রিল ২০

অপ্রত্যাশিত প্রস্থান
               – শিরিনা বিথী

আমি ভালবাসি আমাকে,
আমি ভালবাসি আমার উত্তরসূরীকে,
আমি ভালবাসি মানুষকে।
কিন্ত মৃত্যুর মত চূড়ান্ত পরিণতি প্রতিনিয়ত আমাকে তাড়া করে ফিরছে।
মনে হচ্ছে এই বুঝি আমার প্রাণ গেল,
আমার উত্তরসূরীর প্রাণ গেল,
কিংবা চেনা অথবা অচেনা কোন মানুষের।

হায়! এ কোন মৃত্যু?
কেউ কি ভেবেছিলাম এমন মৃত্যুর মিছিল আমরা দেখব?
কেউ কি ভেবেছিলাম আমার শেষ নিঃশ্বাসটুকু বের হবার প্রাক্কালে আমার স্বজনকে শেষবারের মত ছুঁয়ে দেখতে পারবনা?
কেউ কি একবারের জন্যও ভেবেছিলাম চূড়ান্ত ঘুমের মধ্যে শুনতে পাবো না স্বজনের আহাজারি?
পবিত্র কুরআন শরীফের কোন আয়াত?
কিংবা কোন জানাজায় শত সহস্র মানুষের অনুপস্থিতি, ক্রন্দনরত স্বজনের দোয়া?
কেউ কি ভেবেছিলাম আমার নিথর দেহটিকে অত্যন্ত অযত্নে মাটি চাপা দিয়ে আসবে, অজানা অচেনা কোন গন্তব্যে?

কিন্তু আজ এটাই সত্য।
সব অনভ্যস্ত, অপ্রত্যাশিত বিষয়গুলি যেন চির নির্মম হয়ে ধরা দিচ্ছে।
এখন আমি কল্পনা করিনা একটা স্নিগ্ধ সকাল দেখবার।
ভাবিনা কোন ভর দুপুরের খররোদ্রৌ দাড়িয়ে একমুঠো রোদ আমার ক্লান্ত শরীরে ছোঁয়াব।
একদম কল্পনাতে নেই যে ভরা পূর্ণিমায় আমার প্রিয় মানুষটির কাঁধে মাথা রেখে জোস্না স্নান করব।
এখন দুচোখ জুড়ে শুধুই অনিঃশেষ অন্ধকার।
হে সর্বশক্তিমান,
এমন অপ্রত্যাশিত মৃত্যু কাউকে দিও না।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ