শূন্যতা ǁ শিরিনা বীথি

প্রকাশিতঃ ৬:৪৩ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২ জুলাই ২০

তোমার সাথে শেষ দেখা হয়েছিল
কোন বৃহস্পতিবার?
তারিখটা ঠিক মনে পড়ছে না।
আবার এটাও মনে নেই
ঠিক কোন সময়টাতে?
সকালে?
মধ্য দুপুরে?
না কোন গোধুলি বেলায়?
সব পাখিরা যখন নীড়ে ফেরে, তখন?

তোমার সঙ্গে আমার কোন নীড়ে হয়তো কখনো দেখা হবে না
বরাবরের মতোই কোন ব্যস্ততম রাস্তার মোড়ে,
অথবা কোন কোলাহলমূখর কফি শপে,
ধোঁয়া ওঠা কফির পেয়ালার সামনে।

কি কথা দিয়ে আলাপ শুরু,
মধ্যখানে কি নিয়ে আলোচনা
অথবা, বিদায় নেবার ঠিক আগ মূহুর্তে
কি বলে নিজের গন্তব্যে একাকী ফিরে আসা।
আজকাল মনের গহীনে
সব কিছুই ধোঁয়াশা একে দিচ্ছে।

যে তুমি ছিলে আমার কাছে
এক স্বচ্ছ কাঁচের মতো চেনা কেউ,
যে তুমি আমার সমস্ত অস্তিত্ব জুড়ে
এক মাতাল হাওয়ার মত,
যে তুমি বিবর্ণ বিকেলে বিদ্যুৎ এর ঝলকানির মতো
অতি স্পষ্ট উজ্জ্বলতর নক্ষত্র।
সেই তোমাকে আমি আজ ভুলতে বসেছি।

আমার অন্তরাত্মার ভেতর কি রকমভাবে বহমান
তুমি তা জানো না।
তোমার উপস্থিতি আমার আত্মাকে সর্বদা পরিশুদ্ধ করে।
তোমার একটুখানি উপলব্ধি
আমাকে বিবেকবান মানুষ হতে শেখায়
তোমার একটুখানি মন্দ লাগা
আমাকে কঠিন বাস্তবতা শেখায়।

সেই তোমাকে আমি কেন ভুলতে বসেছি?
সত্যি কি তুমি খুব অচেনা হয়ে যাচ্ছ?
নাকি তুমিই আমার ভেতর?
যা আজকের আমি
তার সবটুকুই জুড়েই কেবল তুমি।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।