শেষবারের মতো বাড়ল হজ নিবন্ধনের সময়সীমা

প্রকাশিতঃ ৯:০৩ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ১৬ এপ্রিল ২০

সময় জার্নাল ডেস্ক : বিশ্বব্যাপী মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের কারণে এ বছর সাধারণ হাজিরা হজ পালনের সুযোগ পাবেন কি না তা এখনো নিশ্চিত নয়। সৌদি আরব ইতিমধ্যে ঘোষণা দিয়েছে সর্বসাধারণের জন্য হজ যাত্রা উন্মুক্ত করা না গেলে ফেরত দেওয়া হবে নিবন্ধনের টাকা। বাংলাদেশেও চলছে হজ কার্যক্রমে অনিশ্চয়তা। আবার বাড়ানো হয়েছেন নিবন্ধনের সময়সীমা।

বৃহস্পতিবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত নিবন্ধন করা যাবে। এর আগেও দুই দফা সময় বাড়ানো হয়েছিল। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এবারই শেষবারের মতো সময় বাড়ানো হচ্ছে। ভবিষ্যতে আর সময় বাড়ানো হবে না। সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ পালনে ইচ্ছুকরা বর্ধিত সময়ে প্রাক নিবন্ধন ও নিবন্ধন করতে পারবেন। যারা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ পালনে প্রাক নিবন্ধন করেছিলেন শুধু তারাই নিবন্ধন করতে পারবেন। যাদের প্রাক নিবন্ধন সিরিয়াল ৬২৭১৯৯ এর মধ্যে রয়েছে তারা ‘আগে আসলে আগে পাবেন’ ভিত্তিতে নিবন্ধন করতে পারবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ পালনে যারা নিবন্ধন করবেন তারা যেনো কোনো অবস্থাতেই এক লাখ ৫১ হাজার ৯৯০ টাকার বেশি প্রদান না করেন। কোনো এজেন্সি অতিরিক্ত টাকা দাবি করলে ধর্ম মন্ত্রণালয়কে জানাতে অনুরোধ করা হয়েছে।

হজ এজেন্সিগুলোকে সতর্ক করে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কেউ যেনো নিবন্ধন টাকা ব্যাংক থেকে উত্তোলন না করেন। হজ নিবন্ধনের টাকা বাংলাদেশে খরচ করার সুযোগ নেই। নিবন্ধন বাবদ জমাকৃত টাকা এজেন্সিগুলো যেনো উত্তোলন করতে পারে, সেদিকে খেয়াল রাখার অনুরোধ করা হয়েছে ব্যাংকগুলোকে।\

আগামী আগস্ট মাসের মাসের প্রথম সপ্তাহে পবিত্র হজ পালিত হতে পারে। প্রতি বছর হজের প্রায় দেড় মাস আগে থেকে হাজিরা সৌদি আরবের উদ্দেশ্যে যেতে শুরু করেন। এ হিসেবে আগামী জুনের মাঝামাঝি থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হওয়ার কথা। কিন্তু করোনার কারণে এবার এখনও নিবন্ধন কার্যক্রমই শেষ করা যায়নি। করোনার বিস্তার রোধে মক্কা, মদিনা মসজিদে বহিরাগত মুসলিতদের প্রবেশ বন্ধ রয়েছে। বন্ধ রয়েছে ওমরাহ।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ