সংস্কৃতির চর্চা বাড়লে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ কমবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ ৪:৪৪ অপরাহ্ণ, বুধ, ১৩ নভেম্বর ১৯

খুলনা প্রতিনিধি: দেশের তরুণ সমাজকে সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ ও মাদক থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, শিক্ষার সাথে সাথে আমরা খেলাধুলার সঙ্গে দেশের তরুণ সমাজকে যত বেশি যুক্ত করতে পারব, তাতেই তারা এ ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ থেকে দূরে থাকবে। নিজেকে দক্ষ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে পারবে। সেইসঙ্গে সংস্কৃতির চর্চা ও মেধা মনন বিকাশে ব্যবস্থা করতে হবে।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে খুলনায় অনুষ্ঠিত শেখ রাসেল ইন্টারন্যাশনাল ক্লাব কাপ টেনিস টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

টেনিস টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ইচ্ছা থাকা সত্বেও খুলনা যেতে পারলেন না উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের দেশে এরকম একটি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে হচ্ছে। এখন আমার কাছে মনে হচ্ছে আমার খুলনায় যাওয়া উচিত ছিল। কিন্তু যেহেতু পার্লামেন্ট চলছে, তাই আমার ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও যেতে পারলাম না। আজকে আমরা আরও ২৩ টি উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় আনতে পেরেছি। দেশকে দেশের মানুষকে আলোকিত করাই সবচেয়ে বড় কথা। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দেওয়ার মাধ্যমে মানুষকে আমরা আলোকিত করতে পারছি। এছাড়া আগামী বছর মুজিববর্ষে সারা দেশকে আমরা শতভাগ বিদ্যুতায়ন নিশ্চিত করতে পারব।

এসময় খুলনা সার্কিট হাউস সংলগ্ন শেখ রাসেল ইন্টারন্যাশনাল টেনিস কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণ থেকে ভিডিও ফারেন্সে যুক্ত হন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন,  খুলনার বিভাগীয় কমিশনর ড. মো: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ,পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির, ডিআইজি ড. খঃ মহিদ উদ্দিন, সরকারি কর্মকর্তা, বিদেশি খেলোয়াড়সহ আরও অনেকেই।

উল্লেখ্য, ১৮টি দেশের ২১টি ক্লাবের মোট ৬৪ জন টেনিস খেলোয়াড় এই টুর্নামেন্টে অংশহগ্রহণ করছেন। যার মধ্যে ১০ জন নারী খেলোয়াড়ও রয়েছেন। পুরুষ একক, পুরুষ দ্বৈত ও নারী একক এই তিন ভাগে খেলা অনুষ্ঠিত হবে। আন্তর্জাতিক ও স্থানীয় রেফারিগণ খেলা পরিচালনা করবেন।

খেলাগুলো খুলনা সার্কিট হাউস শেখ রাসেল ইন্টারন্যাশনাল টেনিস গ্রাউন্ড, অফিসার্স ক্লাব, খুলনা ক্লাব, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ও খুলনা ডিআইজি টেনিস গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়াও অতিরিক্ত হিসেবে জাহানাবাদ ক্যান্টনমেন্ট টেনিস গ্রাউন্ড প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

খেলোয়াড়দের জন্য সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সকল বাহিনীর সমন্বয়ে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতিটি ম্যাচ শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের খেলার ফলাফল জানাতে খুলনা সার্কিট হাউস এবং অফিসার্স ক্লাবে দুইটি নিয়ন্ত্রণ কক্ষ সার্বক্ষণিক কাজ করবে। খুলনা জেলা প্রশাসন ও অফিসার্স ক্লাব এই টুর্নামেন্টের আয়োজন করেছে।

অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে-মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, মঙ্গোলিয়া, কোরিয়া, থাইল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ক্যামেরুন, ইতালি, নেপাল, শ্রীলংকা, তিউনেশিয়া, গ্রেট ব্রিটেন, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান, পাকিস্তান, ভূটান, ভারত, ইরাক ও স্বাগতিক বাংলাদেশ।

ময় জার্নাল/ খায়রুল বাশার

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ