সরকারের নিজস্ব দুর্বলতা ও ব্যর্থতার কারণেই পতন হবে: মওদুদ

প্রকাশিতঃ ৩:০৫ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৮ নভেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: সরকার তাদের নিজস্ব দুর্বলতা ও ব্যর্থতার কারণেই পতন হবে বলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ দাবি করে বলেন, এই সরকার তাদের নিজেদের দুর্নীতির কারণেই পতন ডেকে আনবে।

শুক্রবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার স্মরণে আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। স্বাধীনতা ফোরাম এই সভার আয়োজন করে।

মওদুদ আহমদ বলেন, ‘বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রী জাসদ নেতা মঈন উদ্দীন খান বাদল মারা যাওয়ায় তার জন্য জাতীয় সংসদে শোক প্রকাশ করেছেন। ক্ষণিকের জন্যও তিনি সাদেক হোসেন খোকার নাম উল্লেখ করেননি। কিন্তু কেন? এর কারণ কি এটা যে, একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে সাদেক হোসেন খোকা আজকের প্রধানমন্ত্রীকে তখন হারিয়ে দিয়েছিলেন?’ তিনি বলেন, ‘সাদেক হোসেন খোকা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন। একজন সৎ সাহসী নাগরিক ছিলেন। তার কথা কি তার (প্রধানমন্ত্রী) মনে আসে নাই? আমরা তো মনে করি, প্রধানমন্ত্রী একজন বিরাট মনের মানুষ। তার উচিত ছিল সর্বপ্রথম খোকার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য রাখা।’

মওদুদ দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমাদের অনেকের মধ্যে একটা শঙ্কা ও ভয়ভীতি আছে। আমরা রাস্তায় নামছি না বা নামতে পারছি না। আর সে কারণে হয়তো এই সরকারের পতন হবে না। কিন্তু আমি হতাশ নই। আমাদের অতীত বলছে, যেভাবে আন্দোলন করে একটা সরকারকে পতন ঘটাতে হয়, সেই ধরনের আন্দোলন সব সময় হয় না। আমি মনে করি, বর্তমান সরকার নিজেদের দুর্নীতির কারণেই তাদের পতন ডেকে আনবে। দুর্নীতির যে শেকড় সেগুলো তারা তৈরি করেছে। এই খালেদ মাহমুদ ও জি কে শামীমের বিচার করে দুর্নীতি দমন হবে না। শোভন-রাব্বানীর তো বিচারই হচ্ছে না। আপনারা মনে করছেন, হাতেগোনা কয়েকজনের বিচার করে আপনারা পার পেয়ে যাবেন। এটা কিন্তু যথেষ্ট নয়। দেশের মানুষ জানে দেশে কোনও প্রকার বিচার নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমান সরকার দলীয় শাসন চালাচ্ছেন। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ২১ মাস ধরে কারাগারে বন্দি রয়েছেন। তিনি চিরদিন বন্দি থাকবেন না। আমরা খালেদা জিয়াকে যে কোনও সময় মুক্ত করে আনবো। যে কোনও সময় ছোট্টো একটি ঘটনায় সরকারের পতন ডেকে আনতে পারে। এরআগে বেশ কয়েকটি উদাহরণ আমরা দেখেছি।’ মওদুদ বলেন, ‘আজ সরকার বলছে, খালেদা জিয়া সুস্থ আছেন। কিন্তু আমরা বলছি, তিনি অসুস্থ। আমরা খালেদা জিয়াকে দেখতে যেতে চাই, আসলে তিনি কি অসুস্থ না সুস্থ। আমরা সরকারের কথায় আস্থা রাখতে পারছি না।

আয়োজক সংঠনের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মাদ রহমাতুল্লাহর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ