সিরিয়ায় তুরস্ক-রাশিয়া মুখোমুখি, ক্ষুব্ধ এরদোগান

প্রকাশিতঃ ৮:১০ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ায় সরকারি বাহিনীর হামলায় ছয় তুর্কি সেনা নিহত হওয়ার ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান। সিরিয়ায় মোতায়েন তার দেশের বাহিনীর ওপর যেকোনো হামলার কঠোর জবাব দেয়া হবে বলে হুশিয়ার করেছেন তিনি।

তুর্কি গণমাধ্যম ডেইলি সাবাহ জানিয়েছে, সোমবার এরদোগান সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশে তুর্কি সেনাবাহিনীর সঙ্গে দ্বন্দ্ব এড়াতে রাশিয়ার কর্তৃপক্ষকে সতর্ক করেছেন। পাশাপাশি রাশিয়াকে নিজের দেয়া প্রতিশ্রুতি পূরণ করারও আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

একই দিনে তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মস্কোর এক বিবৃতি প্রত্যাখ্যান করেছে। যেটিতে রাশিয়ার পক্ষ থেকে সিরিয়ার আইন আল-আরব প্রদেশে তুর্কি-রুশ যৌথ টহল নির্ধারণের ঘোষণা দেয়া হয়েছিল, কিন্তু তুর্কি কর্মকর্তারা তা প্রত্যাখ্যান করেন।

স্থানীয় সময় সোমবার সকালে সিরিয়ার বিদ্রোহী অধ্যুষিত যুদ্ধবিধ্বস্ত ইদলিব অঞ্চলে অবস্থান নেয়া তুরস্কের সেনাবাহিনীর হামলা চালায় সিরিয়ার সরকারি বাহিনী। এতে তাৎক্ষণিক চার তুর্কি সেনা নিহত হন। আহত ৯ জনের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ওই হামলার জবাবে তুরস্কের হামলায় ছয় সিরীয় সেনার মৃত্যু হয়।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, তুরস্ক ইদলিবে তার সেনা অভিযান সম্পর্কে মস্কোকে তথ্য না জানানোর কারণে তুর্কি সেনাদের ওপর হামলা হয়েছে।

হামলার পরপরই তুরস্ক ওই এলাকাটিতে সিরিয়ার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবহার করার জন্য এফ-১৬ জঙ্গিবিমান মোতায়েন করেছে। এর ফলে ওই অঞ্চলে উত্তেজনা চরমে পৌঁছেছে।

উল্লেখ্য, ইদলিব অঞ্চলে বিদ্রোহীদের উত্তেজনা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোববার পুনরায় সিরিয়ায় ঘাঁটি গেড়েছে তুরস্কের সেনাবাহিনী। তুরস্ক বৃহৎ একটি সেনা কনভয় নিয়ে আর্মর্ড কার, ফুয়েল ট্যাংকারসহ সিরিয়ায় প্রবেশ করে ওই অঞ্চলের কয়েকটি সেনাপোস্টের দখল করে নেয়।

বিদ্রোহীদের সঙ্গে অস্ত্রবিরতি চুক্তির পরও তুরস্কের সেনাবাহিনীর ইদলিবে অবস্থান নেয়ার প্রতিবাদে এ হামলার ঘটনা ঘটল।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ