সিলিন্ডার বিস্ফোরণে বহু হতাহত

প্রকাশিতঃ ৯:০৪ অপরাহ্ণ, বুধ, ৩০ অক্টোবর ১৯

নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর রুপনগর আবাসিক এলাকায় বেলুনে গ্যাস ভরার সময় সিলিন্ডার বিস্ফোরণে নারী ও শিশুসহ পাঁচজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন আরও অন্তত ১০-১৫ জন।

বুধবার বিকেল ৩টার দিকে ওই আবাসিক এলাকার ১১ নম্বর রোডে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ভয়াবহ এ দুর্ঘটনায় অনেকের হাত-পা বিচ্ছিন্ন হয়েছে গেছে। কারও চেহারাসহ পুরো শরীর ঝলছে গেছে।

নিহতরা হলো- রমজান (৮), নুপুর (৭), শাহীন (৯) ও ফারহানা (৬)। বাকি অজ্ঞাত (৭) একজনের নাম ও পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। নিহতদের মধ্যে দুইজনের লাশ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে রয়েছে।

এছাড়া জান্নাত (২৫), জুবায়ের (৮), সাদেকুর (১০), নাহিদ (৭), জামিল (১৪), মরিয়ম (৮/৯), অজ্ঞাতপরিচয়ে (৩০) একজনসহ মোট ১৫ জন আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ১২ জন শিশু, একজন রিকশাচালক ও একজন নারী রয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তাদের মধ্যে ৪ শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. উত্তম কুমার বড়ুয়া সাংবাদিকদের জানান, এক নারী ও তিন শিশুসহ চারজনকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। আহতদের মধ্যে চারজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দু্ইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের ঢাকা মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়েছে।

বিস্ফোরণে নিহতদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ ক্ষতবিক্ষত হয়েছে বলে জানান সোহরাওয়ার্দীর এই চিকিৎসক।

এদিকে, গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। তিনি বলেন, এ ঘটনা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অবহিত করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী হতাহতদের পাশে দাঁড়াতে নির্দেশ দিয়েছেন।

রূপনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দীপক কুমার দাস জানান, সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনায় পাঁচজন নিহত হয়েছেন।

ডিএমপির ডিসি (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলেই তারা মারা যান।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ