সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় ৩টি মোটরসাইকেলে আগুন

প্রকাশিতঃ ৯:১০ অপরাহ্ণ, বুধ, ১১ ডিসেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: ঢাকার সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। কে বা কারা আগুন দিয়েছে এ বিষয়ে নিশ্চিত নয় পুলিশ। বুধবার বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে এই অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স কন্ট্রোল রুমের ডিউটি অফিসার এরশাদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, আগুনের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ঘটনাস্থলে গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে পৌনে ৫টার মধ্যে হাইকোর্টের মাজার গেট, ঈদগাহ মাঠের গেট ও বার কাউন্সিলের গেটের সামনে তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন দেয়া হয়েছে।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, একইসময়ে তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন দেওয়া নাশকতা বলেই মনে হচ্ছে। এ ঘটনায় এখনো কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। আমরা পুরো বিষয়টি তদন্ত করছি, তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

এদিকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত রেজাউল নামে পুলিশের একজন উপ-পরিদর্শক (এসআই) রেজাউল জানান, আগুন দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় সন্দেহভাজন একজনকে আটক করা হয়েছে। তার বিস্তারিত পরিচয় যাচাই-বাছাই শেষে নিশ্চিত হওয়া যাবে। তাকে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর করা হবে।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি কাল (বৃহস্পতিবার)। এর আগের দিন সুপ্রিম কোর্ট এলাকায় এমন অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটলো। যদিও সর্বোচ্চ আদালতের আশপাশ এলাকার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, সকাল থেকেই সুপ্রিম কোর্টের প্রতিটি প্রবেশপথ, আশপাশ ও আদালত চত্বরের অভ্যন্তরের বিভিন্ন স্থানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়া আর্চওয়ে ও মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে তল্লাশির পর আইনজীবী, বিচারপ্রার্থী, সাংবাদিকসহ সংশ্লিষ্টদের আদালত চত্বরে প্রবেশ করানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টে নিয়মিতই পুলিশ সদস্যরা থাকে। তবে যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আজ সুপ্রিম কোর্ট এলাকার নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বিএসএমএমইউ থেকে বিএনপি চেয়ারপারসনের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থার মেডিকেল রিপোর্ট বুধবার বিকেলে সুপ্রিম কোর্টে পৌঁছেছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ