‘১০ লাখ টাকা জারিমানা! টাকা কী এতোই সস্তা?’

প্রকাশিতঃ ৭:০৭ অপরাহ্ণ, সোম, ১৮ নভেম্বর ১৯

বিনোদন ডেস্ক: রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) ভ্রাম্যমাণ আদালত নকশা না মেনে রাজধানীর নিকেতনে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগে চিত্রনায়ক শাকিব খানকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। সোমবার রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফ হোসেন এ জরিমানা করেন।

বিষয়টি নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেন শাকিব খান। তিনি বলেন, ‌’এটা কী ধরনের কথা! হঠাৎ করে এসে এমন আচরণ করবে? আমি তো আর বাড়ির ডিজাইন করিনি, এটি ইঞ্জিনিয়াররা করেছেন। আমাকে কোন নোটিসও দেয়া হয়নি। হুট করে এসে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করলো।’

সোমবার সকালে রাজধানীর নিকেতন এলাকায় অভিযান চালান রাজউকের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় শাকিব খানের ভগ্নিপতি ও তার বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক কাগজপত্র দেখালে বাড়ির নকশা ও নির্মাণে অসংগতি পান আদালত। এ ঘটনায় পরে শাকিব খানকে ১০ লাখ টাকা জরিমান করেন আদালত।

শাকিব খান বলেন, যখন তারা এসেছেন তখন তো আমি দেশের বাইরেও থাকতে পারতাম। বারান্দার বর্ধিত অংশ নিয়ে অনিয়মের প্রমাণ পেয়েছে তারা। তাতেই ১০ লাখ টাকা জারিমানা! টাকা কী এতোই সস্তা?

এ সময় শাকিব খান প্রশ্ন তোলেন, ‘তার পাশের বাড়ির নকশা একইভাবে করা। তাদের তো কেউ কিছু করলো না। আমার সঙ্গে কেনো এমন করা হবে? দায়িত্বশীল অফিসারদের এমন আচরণে আমি সত্যিই বিস্মিত!’

এটা তো ভ্রাম্যমান অভিযান, এমন অভিযানে সাধারণত নোটিস দেওয়া হয়না- এমন কথার বিপরীতে শাকিব খান বলেন, ‘বুঝলাম না এটা কেমন অভিযান? যারা অভিযানে এসেছিলেন, তাদের তো বোঝা উচিত ছিল, কার বাড়িতে অভিযানে যাচ্ছি!’

‌’ইঞ্জিনিয়ার হয়তো বাড়ির বারান্দা এক ফিট বাড়িয়েছে। বিষয়টি নোটিস দিয়ে বললেই তো হতো’- বলেন শাকিব খান।

দেশের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকার কথা জানিয়ে শাকিব বলেন, ‌‌’আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আইন সবার জন্য সমান হোক। আজ এসে ১০ লাখ টাকা চাইল। আগামীকাল এসে অন্য কেউ অভিযান করে বলবে- ২০ লাখ টাকা দেন, নইলে জেল দেবো- এটা কি ধরনের আইন? এটা ঠিক না। এখানে শাকিব খানের ইমেজের বিষয়টি জড়িত- এটা তাদেরও খেয়াল রাখা দরকার।’

উল্লেখ, সোমবার নিকেতন এলাকায় অভিযান চলাকালে রাজউকের জোন (৪) অথরাইজড অফিসার মোহাম্মদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, সকাল থেকে এই এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চলছে। অভিযানের সময় শাকিব খান ওরফে রানার বাড়িটি নকশা না মেনে নির্মাণ করা হয়েছে বলে দেখা গেছে। ওই বাড়ির ছাদ নকশা মেনে করা হয়নি। এ কারণে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ