১৫ নভেম্বর থেকে স্টুডেন্ট ভিসার আবেদন নেবে মার্কিন দূতাবাস

প্রকাশিতঃ ৩:২১ অপরাহ্ণ, শুক্র, ১৩ নভেম্বর ২০

মহামারী করোনা সঙ্কটে দীর্ঘ বিরতির পর শিক্ষার্থীদের নতুন ভিসার আবেদন গ্রহণ শুরু করতে যাচ্ছে ঢাকার যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস। আগামী ১৫ নভেম্বর (রোববার) থেকে এফ, জে এবং এম ক্যাটাগরির ভিসার জন্য নতুন আবেদনকারীদের কাছ থেকে সীমিত আকারে আবেদনপত্র গ্রহণ ও সাক্ষাৎকারের জন্য সময় দেওয়া শুরু হচ্ছে। শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আবেদনকারীদের উদ্দেশ্যে বলা হয়েছে, আবেদনকারীদের http://ow.ly/lq4V50CjmPS, ওয়েবসাইটে লগইন করে এবং অনলাইনে তাদের প্রোফাইল আপডেট/হালনাগাদ করতে হবে। সংশ্লিষ্ট ভিসা ফি প্রদানের পরে অনলাইন সাক্ষাৎকারের সময় নিতে হবে।

জমা দেওয়া আবেদন ফি (এমআরভি) নিয়মিত ভিসা সেবা কার্যক্রম পুনরায় চালু না হওয়া পর্যন্ত বৈধ থাকবে এবং এই আবেদন ফি ব্যবহার করে আগামি ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সাক্ষাত্কারের জন্য সময় নেওয়া যাবে।

করোনাভাইরাসের কারণে দূতাবাসের প্রাত্যহিক কর্মতালিকায় সাক্ষাৎকারের সংখ্যা সীমিত থাকবে। তাই ভিসা প্রসেস করার সময় ছয় সপ্তাহ পর্যন্ত লাগতে পারে বলে জানিয়েছে দূতাবাস। আবেদনকারীদের ভিসা প্রসেসের সময় মনে রেখে ভিসার আবেদন ও ভ্রমণের তারিখ পরিকল্পনা করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। ভিসার বিস্তারিত http://ow.ly/9fhO50CjmPR এ জানা যাবে।

ইউনেসকোর তথ্য অনুযায়ী, উচ্চ শিক্ষার জন্য বাংলাদেশ থেকে বছরে প্রায় ৭০ থেকে ৯০ হাজার শিক্ষার্থী দেশের বাইরে যান। এর বড় একটি অংশ যান যুক্তরাষ্ট্রে।

কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে ভিসা দেওয়া বন্ধ থাকায় প্রস্তুতি পর্যায়ে থাকা অনেক শিক্ষার্থী বিপাকে পড়েন। বিষয়টি নিয়ে তারা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করেন। যুক্তরাষ্ট্রের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্টিভেন বিগান অক্টোবরে বাংলাদেশ সফরে এলে তার কাছেও বিষয়টি তুলে ধরা হয়।

যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস জানিয়েছে, যেসব শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্রে লেখাপড়া করছেন, তারা একই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া চালিয়ে গেলে সাক্ষাৎকার ছাড়াই স্টুডেন্ট ভিসা নবায়নের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।