৩ বছরেও কমিটি পায়নি ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ

প্রকাশিতঃ ২:৩৯ অপরাহ্ণ, সোম, ১৮ নভেম্বর ১৯

ঢাকা কলেজ প্রতিনিধি: বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ শাখা ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ। যাদের বলা হয়ে থাকে ‘দুঃসময়ের রাজপথের যোদ্ধা’। অথচ দীর্ঘ তিন বছরেও কলেজে নেই ছাত্রলীগের কোন কমিটি।

সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন কর্তৃক অনুমোদন দেয়া দীর্ঘ ৩ বছর আগে ২০১৬ সালের ১৭ নভেম্বরে তিন মাসের জন্য ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটি দেয়া হয়েছিল। এতে আহ্বায়ক করা হয়েছিল নুর আলম ভূইয়া রাজুকে।

এই কমিটির নেতাকর্মীদের মাঝে ২০১৭ সালের ২২ জানুয়ারি দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ শাখার আহ্বায়কসহ ১৯ জন নেতাকর্মীকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। আর সেই তিন মাসের আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে এখনও চলছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের অন্যতম এই ইউনিট।

জানা যায়, ২০১৩ সালের ২৯ নভেম্বর রাতে ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়। এ ঘটনায় আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে ৩০ নভেম্বর স্থগিত করা হয় ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি। বর্তমানে ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটিতে ৩৬ জন যুগ্ম আহ্বায়ক ও ৯০ জন সদস্য রয়েছে।

ঐতিহ্যবাহী ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ সম্পর্কে যুগ্ম আহ্বায়ক রাসেল মাহমুদ বলেন, ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগ রাজপথে আগে ছিল এখনও আছে। তবে দীর্ঘদিন যাবত কমিটি না হওয়াতে নেতাকর্মীরা হতাশাগ্রস্ত। কেন জানি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ আমাদেরকে দমিয়ে রাখতে চেষ্টা করে। তারা চায় না ঢাকা কলেজে ছাত্রলীগ কমিটি হোক, অথচ প্রতিটি আন্দোলনে আমরাই রাজপথের আসল যোদ্ধা।

এ সময় ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য জসিম উদ্দিন সময় জার্নালকে বলেন, দীর্ঘ ৩ বছর ধরে ক্যাম্পাসে কমিটি নেই। কমিটি না দিতে পারা কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ব্যর্থতা। নিয়মমাফিক কমিটি হলে নতুনরা নেতৃত্বে আসতো। কে বা কারা চায় না ঢাকা কলেজে কমিটি হোক।

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক কমিটি থেকে বর্তমান কমিটি প্রত্যেক বার ঢাকা কলেজে ছাত্রলীগ কমিটি হবে আশ্বাস দিলেও প্রতি বারেই ব্যর্থ হচ্ছেন। এ নিয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যকে কল দিলেও তিনি ধরেননি।

সময় জার্নাল/ ফাহাদ

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ