বুধবার, ২৫ মে ২০২২

চিকিৎসক সংকটে আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২২
চিকিৎসক সংকটে আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

মুহা: জিললুর রহমান, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জনবল সংকটের কারণে ভেঙে পড়েছে স্বাস্থ্য সেবার মান। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে ২১জন এমবিবিএস চিকিৎসকের পদ থাকলেও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তাসহ ৫জন এমবিবিএস চিকিৎসক দিয়ে কোন রকম চলছে চিকিৎসা কার্যক্রম।

সরকারি হাসপাতালটি দৃষ্টিনন্দন ও বহুতল ভবন বিশিষ্ট হলেও এখানে হাসপাতালের প্রাণ ভোমরা এমবিবিএস চিকিৎসক কম থাকায় উপজেলার ১১ ইউনিয়নের মানুষের চিকিৎসা সেবা দেওয়া অনেকটা অসম্ভব হয়ে পড়ছে। 

হাসপাতালটির এরিয়ায় অন্ধকার দূরীকরণের লক্ষে স্ট্রীট লাইট স্থাপন, সঠিক নিরাপত্তা ও দ্বায়িত্বরতদের তদারকির জন্য সিসি ক্যামেরা স্থাপন করেছেন। কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেন ইউনিট এবং নমুনা সংগ্রহ বুথ স্থাপন আছে। হাসপাতালের পরিষ্কার পরিছন্নতা নিশ্চিতকরণ ও মাঠ পর্যায়ের বিভিন্ন কার্যক্রম গতিশীল করতে কর্তবরত চিকিৎসরা চেষ্টা চালিয়ে  যাচ্ছে। এ স্বাস্থ্য কমপেøেক্স সিজারিয়ান (অপারেশন) চালু, অল্ট্রাসনোগ্রাম, ইসিজি, এক্সরেসহ বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার ব্যবস্থা আছে। এতকিছুর পরও হাসপাতালে জনবল সংকটের কারণে কিছুদিন আগে থেকে সবকিছু যেন মুখ থুবড়ে পড়েছে। জনসাধারন ১ মাস আগেও হাসপাতালে এসে ভালো সেবা পেলেও এখন জনবল সংকটের কারণে অনেকেই তাদের কাঙ্খিত সেবা তারা না পেয়ে হতাশ হয়ে ফিরে যাচ্ছেন। 

স্থানীয়রা আব্দুল্লাহ জানান, বর্তমান স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা যোগদানের পর থেকে কয়েক মাস আগে পর্যন্ত হাসপাতালটিতে ভালো সেবা পাওয়া যেত। এখানে কিছুদিন আগেও বিনামূল্যে সিজারিয়ান অপারেশন করা যেত। এতে উপজেলার অনেক অসহায় রোগীর অর্থ খরচ বেঁচে যেত। সেবার মানও অনেক ভালো ছিল। হাসপাতাল থেকে সেবা কোন প্রকার হয়রানি ছাড়াই পাওয়া যেত। কিন্তু জনবল সংকটের কারণে এখন এখানে অপারেশনও হয় না সেবাও পাওয়া যাচ্ছে না।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: সুদেষ্ণা সরকার বলেন, চিকিৎসক হওয়ার শপথ যখন নিয়েছি তখন মানুষের সেবা দিয়েই যাব। আমি যোগদানের পর থেকে আজ পর্যন্ত আশাশুনিবাসী জরুরি প্রয়োজনে আমাকে পাশে পেয়েছে এবং ভবিষ্যতেও পাবেন।

চিকিৎসকদের মানুষের পাশে থাকা খুব দরকার। আমরা যদি এখন পিছিয়ে যাই তাহলে আমরা আমাদের শপথ পূরণ করতে পারব না।আমরা যেহেতু ডাক্তার তাই আমাদের জীবনের শেষ সময় পর্যন্ত কাজ করে যাব।

তিনি  বলেন, হাসপাতালের চিকিৎসকসহ জনবল সংকটের বিষয়টি সিভিল সার্জনের মাধ্যমে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়কে অবহিত করা হয়েছে। আমরা সীমিত জনবল দিয়ে হলেও রোগীদের সাধ্যমত সেবা দেওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছি। আমিসহ আমার বাকী ৪ ডাক্তার দিনে ও রাতে হাসপাতালে আগত রোগীদের সেবা দেয়ার জন্য কাজ করছি। 

জনবল সংকট মোটামুটি দূর হলে আশাকরি হাসপাতাল থেকে কেউ সেবা বঞ্চিত হবেন না। এদিকে, আশাশুনি হাসপাতালের জনবল সংকট দূর করে সকল জনসাধারণের কাংক্ষিত সেবা পাওয়ার ব্যবস্থা করতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে উপজেলাবাসী।

সময় জার্নাল/এলআর 


Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২২ সময় জার্নাল