বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২

ব্লগার অনন্ত হত্যার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফয়সাল ভারতে গ্রেপ্তার

বুধবার, জুলাই ৬, ২০২২
ব্লগার অনন্ত হত্যার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফয়সাল ভারতে গ্রেপ্তার

সময় জার্নাল ডেস্কঃ

লেখক ও ব্লগার অনন্ত বিজয় দাশ হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি ফয়সাল আহমদ ভারতের বেঙ্গালুরুতে গ্রেপ্তার হয়েছেন। বেঙ্গালুরুর বোম্মনাহাল্লি থেকে ১লা জুলাই ফয়সালকে গ্রেপ্তার করে কলকাতার পুলিশ। এ খবর দিয়েছে আনন্দজবাজার। পত্রিকাটি লিখেছে, তাকে এ বার বাংলাদেশ পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হবে।”

কলকাতা পুলিশের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার লিখেছে, জুনের গোড়ায় বাংলাদেশের গোয়েন্দারা ফয়সালের হদিস পান ভারতে। তার মোবাইল নম্বর কলকাতা পুলিশকে দেওয়া হয়েছিল। দায়িত্ব নেয় এসটিএফ। মোবাইল ট্র্যাক করে বেঙ্গালুরুতে ফয়সালকে পায় পুলিশ।”

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফয়সালকে জেরা করে জানা গিয়েছে, তারই নেতৃত্বে আল-কায়দার আসাম মডিউল নিজেদের ঘাঁটি মজবুত করেছে বরাক উপত্যকায়। হত্যাকাণ্ডের সময়ে ফয়সাল ছিল ডাক্তারির ছাত্র। জড়িয়ে পড়েছিল আল-কায়দার ছায়া সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) সঙ্গে।  বিভিন্ন মাদ্রাসায় পড়ানোর আড়ালে জেহাদি মতাদর্শ ছড়িয়েছে ফয়সাল।

ফয়সালের কাছে যে পাসপোর্ট পাওয়া গেছে, সেখানে কাছাড়-ঘেঁষা মিজোরামের একটি ঠিকানা দেওয়া হয়েছে।

বেঙ্গালুরু থেকে তিনি ড্রাইভিং লাইসেন্স জোগাড় করেছেন। শিলচর থেকে বানিয়েছেন ভুয়া ভোটার কার্ড, যেখানে তার নাম শাহিদ মজুমদার।

আনন্দবাজার লিখেছে, “জেহাদি কার্যকলাপের অভিযোগ স্বীকার করে ফয়সাল জানিয়েছে, ২০১৫ সালেই সে শিলচরে পালিয়ে এসেছিল। তবে ব্লগার হত্যায় জড়িত থাকার কথা সে মানেনি। দাবি, তাকে ফাঁসানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, মুক্তমনা লেখক, ব্লগার, প্রকাশক ও অধিকারকর্মীদের ওপর একের পর এক জঙ্গিবাদী হামলার মধ্যে ২০১৫ সালের ১২ই মে সিলেটের সুবিদবাজারের নূরানী আবাসিক এলাকায় খুন হন ব্লগার অনন্ত বিজয় দাশ।

পেশায় ব্যাংকার অনন্ত বিজ্ঞান নিয়ে লেখালেখির পাশাপাশি ‘যুক্তি’ নামে বিজ্ঞানবিষয়ক একটি পত্রিকা সম্পাদনা করতেন। পাশাপাশি তিনি স্থানীয় গণজাগরণ মঞ্চেরও সংগঠক ছিলেন।

ওই মামলার রায়ে গত ৩০শে মার্চ চারজনকে মৃত্যুদণ্ড দেয় আদালত। তাদের মধ্যে সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার খালপাড় তালবাড়ির ফয়সাল আহমদ (২৭) একজন। বাকি তিনজন হলেন- সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার আবুল হোসেন (২৫), সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের বিরেন্দ্রনগরের (বাগলী) মামুনুর রশীদ (২৫) ও কানাইঘাটের ফালজুর গ্রামের আবুল খায়ের রশীদ আহমদ (২৫)। তাদের মধ্যে খায়ের ছাড়া বাকি দুজনও পলাতক।

এমআই 


Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২২ সময় জার্নাল