বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২

স্বাচিবের মহাসচিব দৌড়ে এগিয়ে ডা. তারিক মেহেদী

বুধবার, নভেম্বর ২৩, ২০২২
স্বাচিবের মহাসচিব দৌড়ে এগিয়ে ডা. তারিক মেহেদী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সমর্থক চিকিৎসকদের সংগঠন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) কেন্দ্রীয় সম্মেলন শুক্রবার। এই নির্বাচনে মহাসচিবের দৌড়ে এগিয়ে আছেন ডা. মো. তারিক মেহেদী (পারভেজ)। নির্বাচিত হলে সংগঠন ও চিকিৎসকদের জন্য কি করতে চান- তার বিশদ জানিয়েছেন। স্বাস্থ্য ক্যাডার বৈষম্য নিরসন ও কৃত্য পেশাভিত্তিক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠায় জোরালো ভূমিকা রাখতে চান ডা. তারিক মেহেদী। 

বর্তমানে ডা. মো: তারিক মেহেদী (পারভেজ) বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং স্বাচিবের কার্যকরি কমিটির সদস্য। তিনি বরিশালের শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ শাখার ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। ডা. তারিক বলেন, ছাত্রলীগের রাজনীতি দিয়ে আমার রাজনৈতিক জীবন শুরু। রাজনীতি করতে গিয়ে  বহুবার জুলুম-নির্যাতনের শিকার হয়েছি। নিজেকে পরিচ্ছন্ন রেখেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশকে বুকে ধারণ করে দ স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিকে সংঘঠিত করা ও স্বাস্থ্যসেবাকে গণমূখী করে চিকিৎসকদের কল্যাণে কাজ করছি। আর বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ সবদিক থেকে এগিয়ে যাচ্ছে। আমি মনে করি, দলীয় নেত্রী ত্যাগের মূল্যায়ন করবেন। তবে তিনি সাংগঠনিক নেত্রী হিসেবে যে সিন্ধান্ত নিবেন সেটাই চূড়ান্ত এবং আমরা তা মেনে নেব। বিগত সম্মেলনগুলোর চেয়ে এবারের সম্মেলনে কিছু গুণগত পার্থক্য রয়েছে বলেও জানান তিনি।

বিএমএ’র এই নেতা বলেন, আমরা বিগত দিনে লক্ষ করেছি চিকিৎসকরা তাদের কর্মস্থলে নিরাপদ নয়, চিকিৎসক লাঞ্চনা ও অবহেলার ইতিহাস অনেক পুরোনো। চিকিৎসকদের জন্য নিরাপদ কর্মস্থলের নিশ্চয়তা প্রদান করা এখন একটি বড় চ্যালেঞ্জ, দেশের জনগনের স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত সকল চিকিৎসক যেন কর্মস্থলে নিরাপত্তার সাথে কাজ করতে পারে সেজন্য চিকিৎসক সুরক্ষা আইন নিয়ে কাজ করতে হবে এবং অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির মাধ্যমে কর্মস্থলে চিকিৎসকদের নিরাপত্তা নিশ্চিৎ করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদকে। আমরা দেখেছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পরও স্বাস্থ্য ক্যাডারের কর্মকর্তাদের সাথে অন্যান্য ক্যাডারের ক্যাডার বৈষম্য দূরীকরণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। স্বাস্থ্য সেবায় বিভিন্ন আন্তর্জাতিক পুরষ্কার প্রাপ্তির পরও আমাদের কর্মকর্তারা সবসময় সবক্ষেত্রে অবহেলিত।আমরা দেখেছি কিভাবে আমাদের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কোভিড, ডেঙ্গু মোকাবেলা করেছে,জীবন দিয়েছে।সেকথা আমাদের ভুলে গেলে চলবেনা। ক্যাডার বৈষম্য নিরসন ও কৃত্য পেশাভিত্তিক মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠার জন্যও স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ কে কাজ করতে হবে।ভীষন ৪১ বাস্তবায়নে স্বাস্থ্য সেক্টরের আধুনিকায়ন প্রয়োজন, উন্নত সেবা নিশ্চিৎ করতে হলে উপরের পদক্ষেপগুলো যুগান্তকারী ফল বয়ে আনবে বলে তার বিশ্বাস।

ডা. তারিক বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকার সম্মতি প্রকাশ করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি দেশরন্ত শেখ হাসিনা কে ধন্যবাদ ও কৃঅজ্ঞতা জানাই। আমরা যারা স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তিতে বিশ্বাসী আশা করছি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি ত্যাগী পরীক্ষিত ছাত্রলীগ কর্মীদের মূল্যায়ন করবেন এবং যোগ্য ব্যক্তিদের হাতে স্বাচিপের নেতৃত্বভার অর্পন করবেন। আমি সুন্দর, সুষ্ঠ ও সফল ভাবে এ সম্মেলন সম্পন্ন হোক এই প্রত্যাশা করছি।

বিএমএ’র সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, জাতীয় নির্বাচনের আর মাত্র ১ বছরের মত সময় বাকী রয়েছে।এখনি সময় স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ করে সামনের যেকোন পরিস্থিতি মোকাবেলা করার জন্য প্রস্তুত হবার।জননেত্রী শেখ হাসিনা যে দায়িত্বই আমাকে অর্পন করবেন আমি সেটাই অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে পালন করবো এবং স্বাধীনতার স্বপক্ষের সকল চিকিৎসকদের অধিকার রক্ষায় সদা সোচ্চার থাকবো, সেই সাথে চিকিৎসকদের মাধ্যমে দেশের অপামর জনগনের স্বাস্থ্যসেবা যেন সুনিশ্চিৎ হয় সে ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

তিনি আরও বলেন, সবাই সম্মেলন সফল করার জন্য নিজ জায়গা থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন সবার কাছে আমার এটাই অনুরোধ।মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চাইলে ৫ম জাতীয় স্বাচিপ সম্মেলনে আমি মহাসচিব হিসেবে দায়ভার গ্রহণে আগ্রহী।

স্বাচিবের এক নেতা নাম প্রকাশ না শর্তে বলেন, মহাসচিব পদে অনেকটাই এগিয়ে আছেন ডা. মো: তারিক মেহেদী। কারণ তিনি দক্ষ সংগঠক এবং পরীক্ষিত নেতা। ছাত্রজীবন থেকেই বিভিন্ন সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন। এছাড়াও তিনি দলের দুর্দিনে বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারাবরণের সময় আন্দোলনের নেতৃত্ব দেওয়া এবং করোনার সময়ে চিকিৎসকের বিপদে-আপদে সব সময় পাশে ছিলেন।

এমআই 


Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২২ সময় জার্নাল