আজ রোববার, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২১ | ১৬ ফাল্গুন, ১৪২৭

শিরোনাম

ইরফান সেলিমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ডিবি’র অভিযোগপত্র দাখিল

প্রকাশিত: শনিবার, ফেব্রুয়ারী ১৩, ২০২১


ইরফান সেলিমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ডিবি’র অভিযোগপত্র দাখিল

নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধর ও হত্যার হুমকির অভিযোগে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের বহিষ্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) জমা দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা (ডিবি) রমনা বিভাগ।

তদন্তে নৌ বাহিনীর কর্মকর্তা লেফট্যানেন্ট ওয়াসিফ আহমদ খানকে ইরফান সেলিমের সহযোগীদের মারধরের প্রমাণ মিলেছে বলে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়েছে।

শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ১টার দিকে রাজধানীর মিন্টো রোডে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে ডিএমপি) গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, ঘটনার সময় ইরফান সেলিম গাড়িতে অবস্থান করছিলেন। তদন্তে মারধরের ভিত্তিতে ঘটনার সঙ্গে তার সহযোগীদের সম্পৃক্ততা পাওয়ায় অভিযোগপত্র তৈরি করা হয়। গত ৮ ফেব্রুয়ারি হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্রটি জমা দেওয়া হয়েছে।

গত বছরের ২৫ অক্টোবর রাতে ঢাকা-৭ আসনের সাংসদ হাজী মোহাম্মদ সেলিমের 'সংসদ সদস্য' লেখা সরকারি গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর করা হয়। ওই ঘটনায় পরের দিন ২৬ অক্টোবর সকালে ইরফান সেলিম, তাঁর বডিগার্ড মো. জাহিদুল মোল্লা ও এ বি সিদ্দিক দিপু, গাড়িচালক মিজানুর রহমান এবং অজ্ঞাত ২-৩ জনকে আসামি করে ওয়াসিফ আহমদ খান বাদী হয়ে ধানমণ্ডি থানায় মামলা করেন।

একই ঘটনায় পরের দিন ২৬ অক্টোবর পুরান ঢাকার বড় কাটরায় ইরফানের বাবা হাজী সেলিমের বাড়িতে দিনভর অভিযান চালায় র‌্যাব। ওই সময় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত মাদক রাখার দায়ে এরফান সেলিমকে এক বছর কারাদণ্ড দেন। আর ইরফানের দেহরক্ষী মো. জাহিদকে ওয়াকিটকি বহন করার দায়ে ছয় মাসের সাজা দেন। এরপর একই বছরের ২৮ অক্টোবর র‌্যাব-৩ এর ডিএডি কাইয়ুম ইসলাম চকবাজার থানায় ইরফান সেলিম ও দেহরক্ষী জাহিদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদকের পৃথক চারটি মামলা দায়ের করেন।

সমন্বিত বাজেট ও হিসাবরক্ষণ পদ্ধতি শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ

সমন্বিত বাজেট ও হিসাবরক্ষণ পদ্ধতি শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ

জবি সাংবাদিক সমিতির আহবায়ক লতিফুল, সচিব জোবায়ের

জবি সাংবাদিক সমিতির আহবায়ক লতিফুল, সচিব জোবায়ের

লেখক মুশতাকের মৃত্যুতে জাবিতে বিক্ষোভ

লেখক মুশতাকের মৃত্যুতে জাবিতে বিক্ষোভ

৩০ মার্চ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে : শিক্ষামন্ত্রী

৩০ মার্চ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে : শিক্ষামন্ত্রী

মোড়েলগঞ্জে বহরবুনিয়ায় দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীর উঠান বৈঠক

মোড়েলগঞ্জে বহরবুনিয়ায় দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীর উঠান বৈঠক

সাতক্ষীরায় সড়কে ঝরলো দুই শ্রমিকের প্রাণ

সাতক্ষীরায় সড়কে ঝরলো দুই শ্রমিকের প্রাণ

ইমাম মুসলিম (রাঃ) ইসলামিক সেন্টারে বোখারী সমাপণী সবক সম্পন্ন

ইমাম মুসলিম (রাঃ) ইসলামিক সেন্টারে বোখারী সমাপণী সবক সম্পন্ন

কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন

কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন

কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন

কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন

ভারতে খেলতে গেলেন সাবেক টাইগার ক্রিকেটাররা

ভারতে খেলতে গেলেন সাবেক টাইগার ক্রিকেটাররা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুব দ্রুত খুলতে চাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুব দ্রুত খুলতে চাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

ফরিদপুরে  অবৈধ ৩টি ট্রলি আটক

ফরিদপুরে অবৈধ ৩টি ট্রলি আটক

কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক: হানিফ

কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক: হানিফ

যৌন হয়রানির দায়ে রাবি শিক্ষককে ৬ বছর অব্যাহতির সুপারিশ

যৌন হয়রানির দায়ে রাবি শিক্ষককে ৬ বছর অব্যাহতির সুপারিশ

জামালপুরে ফাঁসিতে ঝুলে কিশোরের আত্মহত্যা

জামালপুরে ফাঁসিতে ঝুলে কিশোরের আত্মহত্যা

জয়পুরহাটে ভ্যান ও ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে  নিহত ১

জয়পুরহাটে ভ্যান ও ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১

গেইল সহ শক্তিশালী দল নিয়ে শ্রীলঙ্কায় আসছে ক্যারিবিয়ানরা

গেইল সহ শক্তিশালী দল নিয়ে শ্রীলঙ্কায় আসছে ক্যারিবিয়ানরা

আইসিসিকে পাশে পেয়ে যা খুশি তাই করছে ভারত

আইসিসিকে পাশে পেয়ে যা খুশি তাই করছে ভারত

পুনরায় বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদে ইতিহাসবিদ অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন

পুনরায় বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদে ইতিহাসবিদ অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন

সংসার চালাতে ২ কন্যা সন্তান বিক্রি করলো মা!

সংসার চালাতে ২ কন্যা সন্তান বিক্রি করলো মা!