আজ রোববার, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২১ | ১৫ ফাল্গুন, ১৪২৭

শিরোনাম

ধর্ষণ কেন ঠেকানো যাচ্ছে না?

প্রকাশিত: বুধবার, ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০২১


ধর্ষণ কেন ঠেকানো যাচ্ছে না?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সম্প্রতি কুর্মিটোলা বাস-স্ট্যান্ড থেকে হেঁটে বান্ধবীর বাসায় যাচ্ছিলেন। ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে কথা বলে তার সহপাঠীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে নামার পর অজ্ঞাত পরিচয়ের কয়েকজন তাকে পেছন থেকে জাপটে ধরেন। এরপর পার্শ্ববর্তী নির্জন স্থানে নিয়ে তাকে ধর্ষণ ও নির্যাতন করেন। (দ্য ডেইলি স্টার বাংলা) 

গত বছর ডয়চে ভেলে বাংলায় ধর্ষণ কেন ঠেকানো যাচ্ছে না’ শিরোনামে এক প্রতিবেদনে বলা হয়- বাংলাদেশে ধর্ষণ বাড়ছে, বাড়ছে ধর্ষণের পর হত্যা৷ একই সঙ্গে বাড়ছে নিষ্ঠুরতা৷ 

‘‘বিচারহীনতা এবং ভয়ের সংস্কৃতির কারণে ধর্ষণ অনেকটা অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে৷ বিচার না পাওয়ায় এখন অনেকেই আর মামলা করতে আগ্রহী হচ্ছেন না৷ আর ভয়ের কারণেও অনেকে মামলা করতে পারছেন না৷ সাহস পাচ্ছেন না৷ ক্ষমতা আর বিত্তের কাছে বিচার প্রার্থীরা অসহায় হয়ে পড়ছেন৷ আর যারা অপরাধী, তারাও জানে যে তাদের কিছু হবেনা৷ তাই তারাও নিবৃত্ত হয় না৷''

দেখা যায় প্রায় ঘটনার বিচার হয় না, না হওয়ার কারনে অপরাধ বাড়ে; গুণে পরিমানে!
ভুক্তভোগীরা কাঁদে, কখনো কাঁদতেও পারে না, দেখা যায় বাস্তবতায় কাঁদার ক্ষমতাও সীমিত! 
পাশে কেউ এগিয়ে আসে না, ধরে না মন বা শরীর! উল্টো নিজেই যদি বিপদে পড়েন...

উপহাসে বলি ভাই--- কায়দা করে বেঁচে থাকো, আর সময় পেলে স্লোগান দিও বঙ্গবন্ধুর বাংলায় ধর্ষকদের ঠাই নাই। আচ্ছা ধর্ষকদের বাড়ি কই, তাদের কে রক্ষা করে? তারা কারা, কী করে... উচ্চমনের রাষ্ট্রে নিম্নমানের রাজনীতি দেখতে দেখতে মারা যায় দাদা, বুড়ো হয় বাবা, বেড়ে উঠে সন্তান! 

যার ফলে বলা যায় পরিবারের প্রতিটি সদস্য আজ মানসিকভাবে ধর্ষিত, নির্যাতিত, অবহেলিত সেই সঙ্গে নাগরিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। এতে  আপনালোয় জেগে উঠেছে প্রতিবাদের কণ্ঠস্বর। আর মানুষ হয়ে যদি মানুষ না বুঝি তা হলে কিসের রাষ্ট্র আর কিসের গণতান্ত্রিক সরকার! গণতন্ত্রের কোনো সংজ্ঞাই এ সমাজে আলো ফেলেনি। ফলে ফেলানীরাও ফেলনা হয়ে যায়। মমতাময়ী মা’রা কি পারে বুকের কষ্ট ফেলে দিতে? এমন ভাবনার সময় আকাশে উড়ে। মা মাটি মানুষের কাছে আসে না। অথচ এই সমাজে সাধারণ মানুষের ন্যূনতম প্রয়োজনটুকু মেটালেই খুশি। কিন্তু তাও থেকেছে আসমানের আল্লাহর কাছে! অন্যদিকে কাগজে জনগণের রাষ্ট্র হলেও কোনো সিদ্ধান্তে এরা যেতে পারে না। স্বপ্ন দেখাটাও কখনো কখনো অপরাধ।
আমরা জানি, রাষ্ট্রের ধর্ম দুর্বলকে রক্ষা আর দুর্জনকে প্রতিরোধ অথচ সমাজে আজ দ্বন্দ্ব-হানাহানি, রাজনৈতিক কলহ-অস্থিরতা, সামাজিক অবক্ষয়, সহিংসতা বেড়েই চলছে। কখনো বা চলে রক্ষার নামে শুভঙ্করের ফাঁকি। স্বপ্ন মানুষকে বাঁচিয়ে রাখে কিন্তু নিম্ন-মধ্যবিত্ত পরিবারের নিম্নবর্গীয় স্বপ্ন গল্প, উপন্যাসের মতো মলাটবন্দি। জনশ্রুতি আছে নিয়মিতই গুম-খুন-হত্যা-ধর্ষণের মতো অপরাধ করে পার পেয়ে যাচ্ছে পূর্বসূরিদের উৎসাহে। মনে রাখা দরকার, অপরাধ করে পার পেয়ে যাওয়াই নতুন সদস্যদের অপরাধের দিকে ঠেলে দেওয়া।

তবে এই নিদারুণ কষ্টের শহরে বুঝলাম- সবার ‘স্বপ্নপূরণ হয় না, নিয়তির নিয়মে থাকে অধরা । অবরোধ প্রত্যাহার, ধর্ষকদের গ্রেপ্তারে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম কাগজে অনলাইনে মানায়! অন্যদিকে প্রতিদিনকার মৃত্যু দৃশ্য চোখে আঙ্গুল দিয়ে বুঝিয়ে দেয় আমল বদল হলেও জনতার আমলনামা পরিবর্তন হয় না। অথচ এ শ্রেণির মানুষের ওপরই টিকে থাকে রাষ্ট্র !

একটা গল্প বলি, আমাদের বাড়িতে একটি কাপ আছে অনেক কাল আগের, তাতে দাদা রং চা খেতেন, বাবা আর একটু আয়েশী হয়ে দুধ চা, আমি আধুনিক ভাবনায় আর রুচিতে কফি খাই। ভেবে দেখুন এই ভূগোল ও জনসাধারণ জীবন চাওয়া পাওয়া খুব পরিবর্তন হয়নি।


অর্থাৎ সাধারণের অবস্থা একই, কৃষকের অবস্থা একই! শুধু শাসকের চেহারা বদলেছে, আয়েশী জীবনযাপন করছে। রাতারাতি বদলে গেছে কথিত শিক্ষিত সমাজ। কাপের অবস্থা একই থাকছে। যেমন শাসক, শোষণ...। স্বাধীন দেশের এহেন আচরণ, অদ্ভুতভাবে ভাবায়...।

লেখক: ইমরান মাহফুজ, কবি ও গবেষক

সময় জার্নাল/

সমন্বিত বাজেট ও হিসাবরক্ষণ পদ্ধতি শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ

সমন্বিত বাজেট ও হিসাবরক্ষণ পদ্ধতি শীর্ষক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ

জবি সাংবাদিক সমিতির আহবায়ক লতিফুল, সচিব জোবায়ের

জবি সাংবাদিক সমিতির আহবায়ক লতিফুল, সচিব জোবায়ের

লেখক মুশতাকের মৃত্যুতে জাবিতে বিক্ষোভ

লেখক মুশতাকের মৃত্যুতে জাবিতে বিক্ষোভ

৩০ মার্চ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে : শিক্ষামন্ত্রী

৩০ মার্চ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলবে : শিক্ষামন্ত্রী

মোড়েলগঞ্জে বহরবুনিয়ায় দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীর উঠান বৈঠক

মোড়েলগঞ্জে বহরবুনিয়ায় দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীর উঠান বৈঠক

সাতক্ষীরায় সড়কে ঝরলো দুই শ্রমিকের প্রাণ

সাতক্ষীরায় সড়কে ঝরলো দুই শ্রমিকের প্রাণ

ইমাম মুসলিম (রাঃ) ইসলামিক সেন্টারে বোখারী সমাপণী সবক সম্পন্ন

ইমাম মুসলিম (রাঃ) ইসলামিক সেন্টারে বোখারী সমাপণী সবক সম্পন্ন

কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন

কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন

কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন

কক্সবাজার পৌর কাউন্সিলর বাবুর জানাযা সম্পন্ন

ভারতে খেলতে গেলেন সাবেক টাইগার ক্রিকেটাররা

ভারতে খেলতে গেলেন সাবেক টাইগার ক্রিকেটাররা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুব দ্রুত খুলতে চাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুব দ্রুত খুলতে চাচ্ছি: প্রধানমন্ত্রী

ফরিদপুরে  অবৈধ ৩টি ট্রলি আটক

ফরিদপুরে অবৈধ ৩টি ট্রলি আটক

কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক: হানিফ

কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক: হানিফ

যৌন হয়রানির দায়ে রাবি শিক্ষককে ৬ বছর অব্যাহতির সুপারিশ

যৌন হয়রানির দায়ে রাবি শিক্ষককে ৬ বছর অব্যাহতির সুপারিশ

জামালপুরে ফাঁসিতে ঝুলে কিশোরের আত্মহত্যা

জামালপুরে ফাঁসিতে ঝুলে কিশোরের আত্মহত্যা

জয়পুরহাটে ভ্যান ও ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে  নিহত ১

জয়পুরহাটে ভ্যান ও ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ১

গেইল সহ শক্তিশালী দল নিয়ে শ্রীলঙ্কায় আসছে ক্যারিবিয়ানরা

গেইল সহ শক্তিশালী দল নিয়ে শ্রীলঙ্কায় আসছে ক্যারিবিয়ানরা

আইসিসিকে পাশে পেয়ে যা খুশি তাই করছে ভারত

আইসিসিকে পাশে পেয়ে যা খুশি তাই করছে ভারত

পুনরায় বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদে ইতিহাসবিদ অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন

পুনরায় বঙ্গবন্ধু চেয়ার পদে ইতিহাসবিদ অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন

সংসার চালাতে ২ কন্যা সন্তান বিক্রি করলো মা!

সংসার চালাতে ২ কন্যা সন্তান বিক্রি করলো মা!