মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪

বিটল পোকা চাষে সফল খামারিরা

বুধবার, আগস্ট ৩০, ২০২৩
বিটল পোকা চাষে সফল খামারিরা

নিজস্ব প্রতিনিধি:

শেরপুরের নকলার ব্ল্যাক সোলজার ফ্লাই ও বিদেশি বিটল পোকা চাষে সফল সামিনুজ্জামান মিঠু। তিনি হাস মুরগীর খামার ব্যবসায়ী। তিনি তার গ্রামের বাড়িতে‌‌ ‌'ব্ল্যাক সোলজার ফ্লাই ও বিদেশি বিটল পোকাসহ বিভিন্ন জাতের হাস, মুরগি ও মাছের খামার তৈরি করেছেন। 

জেলায় প্রথমবারের মতো বিটল পোকার চাষ করছেন মিঠু। এর আগে কেউ আর বিটল পোকার চাষ করেনি। এজন্য তার এই খামার দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন স্থানীয়সহ অনেকেই। কীভাবে এই পোকা চাষ করা যায় এ বিষয়ে তার কাছ পরামর্শ নিতে আসেন অনেকেই। এ পোকা চাষে তিনি ব্যাপক সাফল্য পাচ্ছেন।

তিনি ৯ মাস আগে ১৫ টাকা করে ২৫০ পিস বিটল পোকা ও দুই মাস আগে দুই হাজার টাকা কেজিতে দেড় কেজি ব্ল্যাক সোলজার ফ্লাই পোকা কিনে নিয়ে আসেন। এখন তার খামারে প্রায় ২৫ হাজার বিটল পোকা ও ব্ল্যাক সোলজার ফ্লাই ডিম পাড়ার পোকা আছে। এই পোকার বাজার মূল্য প্রায় সাড়ে ৫ লক্ষাধিক টাকা।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্যারেট পোকার ও বিদেশি বিটল পোকাসহ মুরগি, হাঁস, মাছ ইত্যাদি খামারে কাজ করছেন স্থানীয় ৬ যুবক। কিন্তু মালিক ঢাকাতে চাকরি করায় তিনি ঢাকাতে থাকেন। তার খামারের সকল কিছু দেখার জন্য সাখাওয়াত হোসেন ফারুক নামে একজন প্রতিনিয়ত কাজ করেন।

তিনিই তার খামারের সকল কিছুর দেখাশুনা ও সার্বিক খোজ-খবর নেন। বাজারে খাবারের দাম বেশি হওয়ায় এই পোকা তার খামারের হাস, মুরগী, মাছের খাবার হিসেবে ব্যবহার করছেন। আর এই পোকা খেলে বাজারের খাবারের থেকে ৭০ গুণ বেশি প্রোটিন থাকে।  

ইতোমধ্যে আমরা ১০ হাজার পোকা মুরগির খাবার হিসেবে ব্যবহার করেছি। আমরা এর পাশাপাশি মাছের জন্য দেড় কেজি ব্ল্যাক সোলজার ফ্লাই পোকা এনেছি। এই পোকা কিছুদিন হল এনেছি, এখন ডিম পারছে। দেখা যাক এটা থেকে কতটুক সফলতা পাই।

তিনি আরও বলেন, এই বিটল পোকাতে প্রোটিন বেশি পরমিাণে থাকে। এই পোকা খেলে মুরগি খুব তাড়াতাড়ি বেড়ে উঠে। আমার মালিক ১ বছর আগে এই খামার দেয়। আমি এই খামারের সকল কিছু দেখাশুনা করি।

আমাদের খামারে হাস, মুরগি ও মাছের থেকে এই পোকা চাষে বেশি লাভ হচ্ছে। আমরা এখনও খামারের কাজ ঠিকমতো শেষ করে উঠতে পারিনি। আমাদের চাহিদা পূরণ হচ্ছে। ইতোমধ্যে বাণিজ্যিকভাবে এই পোকার চাষ করছি আমরা।

এই পোকা চাষে আগ্রহীদের উদ্দেশ্যে ফারুক বলেন, যাদের আগ্রহ আছে অল্প জায়গায় এই পোকার চাষ করতে পারবেন। এই পোকা চাষ একেবারে সহজ। আর অল্প পোকা কিনেও এটা চাষ করে সফলতা পাওয়া সম্ভব।

খামারের শ্রমিক রকিব মিয়া বলেন, আমরা বাসায় বসে থাকতাম, কোন কার্জকম ছিল না। এই খামার হওয়ার পর থেকে এখানে চাকরি করছি। আমাদের দৈনিক ৫০০ থেকে ৪০০ টাকা বেতন দেওয়া হয়। এখানে ৬ জন শ্রমিক হিসেবে কাজ করি। আমাদের খামারে সবথেকে বেশি লাভের হল বিটল পোকা।

নকলা শহরের বাসিন্দা মোরাদ বলেন, আমরা এই বিটল পোকা আর কোন জায়গায় দেখিনি। এই পোকা চাষ করে তিনি লাভবান হয়েছেন। আমারও আশা আছে এ পোকার চাষ করার।

নকলা উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ড. মুহাম্মদ ইসহাক আলী মুঠো জানান, বাজারে পল্টি খাবারের দাম চড়া। তাই আমরা সকলকে এই পোকার চাষ করার জন্য উৎসাহিত করছি। আমরা বিভিন্ন মেলাতেও এই পোকা চাষের সম্পর্কে চাষিদের পরামর্শ দিচ্ছি। বাজারে প্রচলিত খাদ্যের চেয়ে এই খাদ্যের গুনাগুণ ৭০ গুণ বেশি।

এতে মুরগি তাড়াতাড়ি বৃদ্ধি পায়। কেউ যদি বড় পরিসরে এ পোকার চাষাবাদ করে তাহলে মাসে দেড় লাখ টাকার মতো ইনকাম করতে পারবে। আমরা তাকে প্রয়োজনীয় সাহায্য সহযোগিতা করব।

সময় জার্নাল/এলআর


Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

উপদেষ্টা সম্পাদক: প্রফেসর সৈয়দ আহসানুল আলম পারভেজ

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২৪ সময় জার্নাল