আজ রোববার, জানুয়ারী ১৭, ২০২১ | ৪ মাঘ, ১৪২৭

শিরোনাম

আমার মেয়ের গল্প

প্রকাশিত: শুক্রবার, ডিসেম্বর ১১, ২০২০


আমার মেয়ের গল্প

আনোয়ার হোসাইন :

পড়াশোনায় একটু কম মনোযোগী আমার মেয়ে, অন্ততঃ গড় পরতা বাংলাদেশী পরিবারের চেয়ে! ছবি আঁকা, কিংবা কাউকে নকল করে দেখানো অথবা হাতে মেহেদির আলপনা এঁকে ঘন্টার পর ঘন্টা পার করে দিতে ওর কোন কষ্ট হয়না, যত কষ্ট তার পড়াশোনায়! আমার স্ত্রী খুব সিরিয়াস টাইপের ছাত্রী ছিল, যখন যেটা ধরেছে সেটা নাড়ি  নক্ষত্র সহ গিলে ফেলেছে! আর তাঁরই মেয়ে এতটা অমনোযোগী কেমন করে হতে পারে, ভেবেই পায়না!  এই নিয়ে সারাক্ষন দুশ্চিন্তায় মায়ের ঘুম হারাম, আর সাথে আমি কেমন ধরণের পিতা, যে মেয়ের ব্যাপারে কোন মাথা ঘামায়না, তাই নিয়ে ঘোর সন্দেহে জীবন কাটে তাঁর! 


স্কুল থেকে একবার চিঠি পাঠিয়ে আমাকে জরুরী তলব! পড়িমরি করে স্কুলে ছুটে গিয়ে ক্লাসটীচার এর সাথে দেখা করতেই আমাকে প্যারেন্টিং এর উপর একগাদা উপদেশ! মেয়ের পড়াশোনা নিয়ে অনেক উপদেশ দিলেন স্কুলের জাঁদরেল টিচার মিস ফারজানা! জানিনা উনি আসলেই মিস নাকি মিসেস, যেহেতু ক্লাসের ছেলে মেয়েরা মিস ডাকে আমিও তাই লিখলাম! যাইহোক একগাদা প্রতিশ্রুতি দিয়ে এলাম স্কুলে যে আমি বিশেষ খেয়াল রাখব মেয়ের পড়াশোনায়! মনে মনে ভাবলাম, তাহলেই হয়েছে! এটা ওর মায়ের ডিপার্টমেন্ট, আমার উপর একরত্তি ভরসা নাই মেয়ের পড়াশোনা নিয়ে! আমি পারলে মেয়ের সাথে গল্প করেই কাটিয়ে দিই সারাদিন, পড়া ফাঁকি দিয়ে! 


প্রথমে মেয়ে কে ইংলিশ মিডিয়ামেই দিয়েছিলাম! পরে স্কুল গুলোতে ইংলিশ ভার্সন নামে নতুন একটা শাখা খুললো, যেখানে বাংলাদেশী কারিকুলাম ইংরেজিতে শেখানো হবে! বরাবরই দেশি শিক্ষার অনুরাগী এই আমি ও আমার স্ত্রী একমত হলাম যে এই নতুন পদ্ধতিতে দেশি পড়াশোনা সবই হবে, সাথে ইংরেজীটাও রপ্ত হবে বেশ! মেয়ের জন্য খুব কষ্টদায়ক হয়নি কারণ ও ইংরেজিটা বাংলার মতোই একটা ভাষা হিসাবেই নিয়েছে, ফলে ইংরেজিতে আমাদের স্বভাবজাত দুর্বলতা ও পায়নি!


সামনে জেএসসি পরীক্ষা এল! চিন্তায় আমার স্ত্রীর ঘুম নাই, সারাক্ষন দুঃশ্চিন্তা মেয়ে না জানি কি করে এই পরীক্ষায়! সামাজিক মর্যাদার লড়াই আত্মীয় ও বন্ধু মহলে! অন্য বাচ্চারা কেমন করে প্রস্তুতি নিচ্ছে পরীক্ষার জন্য, আর আমার মেয়ে কিরকম অলস সময় পার করছে এই নিয়ে আমার স্ত্রীর মহাচিন্তা! যদি মেয়ের ক্লাসের বন্ধুরা ওর চেয়ে বেশি ভাল রেজাল্ট করে ফেলে তাহলেতো সর্বনাশ! মানে মেয়ে যদি মোটামুটি মানের একটা A গ্রেড পেলেই আমরা আকাশের চাঁদ হাতে পাই আরকি! আমার স্ত্রী ব্যাপক পরিশ্রম শুরু করে দিল মেয়েকে এই পরীক্ষার বৈতরণী পার করানোর জন্য! রাতদিন এক করে মেয়েকে নিয়ে ব্যাস্ত! ফাঁকে ফাঁকে মেয়ের বন্ধুর মায়েদের সাথে ফোনে কথা বলে জেনে নেওয়া তারা কেমন করছে! ছাত্র ছাত্রীদের চাইতে মায়েদের টেনশন হাজার গুনে বেশি, টের পেলাম হাড়ে হাড়ে! 


আমাদের সময়ে মা শুধু খবর নিতেন যাতে পরীক্ষার দিন ডিম বা রসগোল্লা জাতীয় কিছু না খাই, বাকিটা আল্লাহ ভরসা! এখন মায়েরা দুশ্চিন্তার ঠেলায় পারলে পরীক্ষার হলে গিয়ে পরীক্ষা দিয়ে এসে যদি খানিক শান্তি পায়! আর আমার মেয়ের মত উদাসীন ছাত্রীর মায়ের দুঃশ্চিন্তা খানিক বেশিই হবে! 


পরীক্ষা শুরু হল! মেয়ে পরীক্ষার হলে ঢুকলে মায়েরা সব মুখ শুকিয়ে বাইরে বসে থাকে, যেন ভিতরে মেয়েদের বিচার চলছে! আমিও মুখ কাঁচুমাচু করে এদিকওদিক ঘুরে বেড়াই! যেন খুব চিন্তাগ্রস্ত পিতা আমি! আসলে চিন্তা করার তেমন কোন কারণ খুঁজে না পেয়ে নিজেই নিজেকে নিয়ে চিন্তিত! কেমন ধরণের বাপ আমি? এভাবে শামুকের মত ধীরগতিতে পরীক্ষার দিন গুলো পার হল! এবার শুরু হল রেজাল্টের টেনশন! 


রেজাল্টের দিন যতই এগিয়ে আসছে আর আমার বাসার পরিবেশ গম্ভীর হয়ে আসছে! যেন বিচারের রায় হবে, আমরা সবাই আসামি! কিযে সাজা হয়! মানে কিযে রেজাল্ট হয়!! রাতে ঘুমাতে পারিনা, দুঃশ্চিন্তায় না! আমার স্ত্রীর চিন্তায়, যদি মেয়ের রেজাল্ট খারাপ হয় তাহলে সে বোধহয় হার্ট এটাক করবে! 


আজ রেজাল্ট হবে! সকাল থেকেই প্রস্তুত সবাই, স্কুলে যাওয়ার জন্য, ওখানেই জানা যাবে আসল রেজাল্ট! 


রেজাল্ট আসতে থাকল ক্লাসের সব স্টুডেন্টদের, অনেকেই ছিল যারা ভাল করার কথা কিন্ত তাদের রেজাল্ট তেমন ভাল হয়নি, মানে আশানুরূপ হয়নি! আমার স্ত্রী পারলে অজ্ঞান হয় যায় শোকে ও চিন্তায়, না জানি কি রেজাল্ট করে আমার অমনোযোগী এই মেয়ে! আরেকটু যদি সিরিয়াস হত মেয়েটা পড়াশোনায়! 


ফাইনালি মেয়ের রেজাল্ট এল A প্লাস! আমার স্ত্রী যেন হঠাৎ আকাশের চাঁদ পেল হাতে!  কেঁদেই ফেলল! আনন্দে! এরপর জানা গেল মেয়ে আমার গোল্ডেন জিপিএ ৫ পেয়েছে! খুশিতে আমার স্ত্রী পাগল হতে কেবল বাকি! পরে জানা গেল মেয়ে আমার সেই বছর ইংলিশ ভার্সনের ক্যাটাগরিতে ঢাকার স্কুল গুলোতে  সেরা দশ জনের মধ্যে একজন! সে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিও পাবে! খুশিতে আমার স্ত্রী হাউমাউ করে কেঁদেই ফেলল! 


আমার মেয়ে নির্বিকার! যেন এই রেজাল্ট নিয়ে এত হৈচৈয়ের কি আছে? 


লেখক : আনোয়ার 

ফিলাডেলফিয়া (সিটি অফ ব্রাদারলি লাভ)

ডিসেম্বর ১০, ২০২০

বিজেপি করোনাভাইরাসের চেয়ে বিপজ্জনক : নুসরাত

বিজেপি করোনাভাইরাসের চেয়ে বিপজ্জনক : নুসরাত

সশস্ত্র বিক্ষোভের শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ অঙ্গরাজ্যে সতর্কতা বাইডেনের শপথ গ্রহণ

সশস্ত্র বিক্ষোভের শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ অঙ্গরাজ্যে সতর্কতা

ময়মনসিংহের দুটি পৌরসভায় মেয়র পদে নৌকার প্রার্থীরা বিজয়ী

ময়মনসিংহের দুটি পৌরসভায় মেয়র পদে নৌকার প্রার্থীরা বিজয়ী

নরওয়েতে ফাইজারের টিকা নেওয়ার পর ২৩ জনের মৃত্যু

নরওয়েতে ফাইজারের টিকা নেওয়ার পর ২৩ জনের মৃত্যু

নির্বাচিত হয়েই খুন হলেন বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর

নির্বাচিত হয়েই খুন হলেন বিএনপি সমর্থিত কাউন্সিলর

উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দল ঘোষণা

উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে দল ঘোষণা

খাগড়াছড়ি পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার বিজয়

খাগড়াছড়ি পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার বিজয়

হোমনা পৌর নির্বাচনে অ্যাড. নজরুল পুনরায় নৌকা পাওয়ায় সমর্থকদের আনন্দ মিছিল

হোমনা পৌর নির্বাচনে অ্যাড. নজরুল পুনরায় নৌকা পাওয়ায় সমর্থকদের আনন্দ মিছিল

৩৬তম বিসিএস ক্যাডারস এসোসিয়েশনের শীতবস্ত্র বিতরণ

৩৬তম বিসিএস ক্যাডারস এসোসিয়েশনের শীতবস্ত্র বিতরণ

শৈলকূপা পৌর নির্বাচনে গোপন কক্ষে গিয়ে ভোট দিলেন নৌকার এজেন্ট!

শৈলকূপা পৌর নির্বাচনে গোপন কক্ষে গিয়ে ভোট দিলেন নৌকার এজেন্ট!

হাকিমপুরে ১০ বছর বয়সী মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টায় শিক্ষক আটক

হাকিমপুরে ১০ বছর বয়সী মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টায় শিক্ষক আটক

ভোট দিয়ে জনপ্রতিনিধি নির্বাচনের পরিস্থিতি এখন বাংলাদেশে নেই : রিজভী

ভোট দিয়ে জনপ্রতিনিধি নির্বাচনের পরিস্থিতি এখন বাংলাদেশে নেই : রিজভী

দাগনভুঞা পৌরসভায় নৌকা প্রতীকের ওমর ফারুক খান নির্বাচিত

দাগনভুঞা পৌরসভায় নৌকা প্রতীকের ওমর ফারুক খান নির্বাচিত

বোয়ালমারীতে ব্যালট পেপারে অগ্নিসংযোগ, সহিংসতার জেরে ১০ বাড়িঘর ভাংচুর, আহত ২

বোয়ালমারীতে ব্যালট পেপারে অগ্নিসংযোগ, সহিংসতার জেরে ১০ বাড়িঘর ভাংচুর, আহত ২

মোংলায় নৌকার প্রার্থী আব্দুর রহমান জয়ী

মোংলায় নৌকার প্রার্থী আব্দুর রহমান জয়ী

বসুরহাটে বিপুল ভোটে জয়ী হলেন আলোচিত কাদের মির্জা

বসুরহাটে বিপুল ভোটে জয়ী হলেন আলোচিত কাদের মির্জা

সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে ২১ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

সাতক্ষীরা পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে ২১ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

রিয়েলমির প্রথম ‘সেলস অ্যান্ড সার্ভিস’ ফ্ল্যাগশিপ সেন্টারের যাত্রা শুরু

রিয়েলমির প্রথম ‘সেলস অ্যান্ড সার্ভিস’ ফ্ল্যাগশিপ সেন্টারের যাত্রা শুরু

ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সম্পাদকের পদ স্থগিত

ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সম্পাদকের পদ স্থগিত

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের গবেষণা সহায়তা পেলেন কুবি শিক্ষক

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের গবেষণা সহায়তা পেলেন কুবি শিক্ষক