বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১

বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে কী আসলেই কোনো গবেষণা হয় না?

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৭, ২০২১
বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে কী আসলেই কোনো গবেষণা হয় না?

বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আসলেই কোনো গবেষণা হয় না? 

- সকল বিশ্ববিদ্যালয়েই পদোন্নতির জন্য গবেষণা পত্র বাধ্যতামূলক এবং তা ৩-১০ টি কমপক্ষে। 
- সকল বিশ্ববিদ্যালয়েই অসংখ্য পিএইচডি ডিগ্রিধারী শিক্ষক অগণিত। তাদের গবেষণাই - ডিগ্রির আসল পূঁজি। 
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে - এমডি/এস নামক উচ্চশিক্ষার মেডিকেল ডিগ্রি অর্জনের অর্ধেক টা গবেষণা। আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্র এবং ছোট্ট  

ফ্যাকাল্টি সদস্য হিসেবে বলতে পারি - কমপক্ষে সব মিলিয়ে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে বছরে ২০০-৫০০ গবেষণা হয়।
বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ /ইন্সটিটিউট এর মেডিকেল জার্নালই আছে - ৮০-৯০ টি যা BMDC কতৃক অনুমোদিত। নিয়মিত প্রকাশিত না হলে, রেজিষ্ট্রেশনই থাকে না। এসকল জার্নালে - বছরে কমপক্ষে ১-২ হাজার গবেষণা পত্র প্রকাশ হয়। 

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বুয়েট সহ আরও সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণার ব্যপ্তি সম্বন্ধে আমার সামান্য যা ধারণা - তাতেও হাজার হাজার গবেষণা নিয়মিত চলমান। 

কাজেই গবেষণা হয়-ই না বলে - একজন সাংবাদিক, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী'র সাংবাদিক সম্মেলনে যে প্রশ্ন তুলেছিলেন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যা উত্তর দিয়েছেন  - তা নিয়ে, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের গভীর পর্যালোচনা করে, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। 

গবেষণার ফান্ডের তুলনায় গবেষণা প্রোটোকল - সবসময়ই বেশি জমা পরে, সরকারি যথাযথ দপ্তরগুলোতে। আবার প্রয়োজনীয় বাজেটের সংকট তো আজন্ম। 
গবেষণা হয়-ই না - এই দেশে, এটা একেবারেই মিথ্যা ইনফরমেশন। 

তবে হ্যাঁ, গবেষণা ফলাফল - গণ প্রচার মাধ্যমে ফলাও করে প্রচার হয় না। হয়তোবা পৃথিবীখ্যাত জার্নালে পাবলিশ হয় না ( সেসব হওয়ানোর আবার নানা কৌশল আছে, যার সাথে ডলারের সম্পর্কও বিরাজমান)! 
গবেষণা মানে তো আবিষ্কার করা না। 

তবে - গবেষণা হয় কি হয় হয় না, এটা নিয়ে একটা গবেষণা হতে পারে। 

কিছু চুরি ধারি ইস্যু আছে, সেটা আলাদা বিষয়। গবেষণার মান- সেটাও আলাদা ইস্যু। 

গবেষণার জন্য প্রাতিষ্ঠানিক গবেষণাগার এবং যথাযথ সাপোর্ট না দিলে - আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে পৌঁছানো অসম্ভব। 
আইসিডিডিআরবির গবেষণা - আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে স্বীকৃতির কারণ, সেখানে মোটামুটি একটা গবেষণার পরিবেশ বিরাজমান। 

গবেষণা হয়ই না - এ কথায় আমি হতভম্ব হয়ে যাই - এ কারণে যে, তাহলে আমার শিক্ষকদের যে ৫০-১০০ প্রকাশনা - সেসব কোথা থেকে হলো? 

আসছে আগামী ২৭ অক্টোবর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বাবের মতো - " বিশ্ববিদ্যালয় গবেষণা দিবস" উদযাপন হতে যাচ্ছে।  সকলকে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ যথাসময়ে নিমন্ত্রণও জানাবেন,  আপনারা আসবেন।


Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.



স্বত্ব ২০২১ সময় জার্নাল | ডেভেলপার এম রহমান সাইদ