বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২

৪শ’ শয্যায় উন্নীত হচ্ছে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল

বুধবার, অক্টোবর ২৭, ২০২১
৪শ’ শয্যায় উন্নীত হচ্ছে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতাল

সময় জার্নাল প্রতিবেদক :

রাজধানীর শেরে-ই-বাংলা-নগরে অবস্থিত জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা আরও ২শ’ বাড়ানো হচ্ছে। এরফলে ২শ’ শয্যার হাসপাতালটি ৪শ’ শয্যায় উন্নীত হচ্ছে। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের উপসচিব ড. বিলকিস বেগম স্বাক্ষরিত নোটিশে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। 

হাসপাতালটিতে ১০ টাকার টিকেটে এখানে মেলে স্বাস্থ্যসেবা, ওষুধ ও সাইকোথেরাপি। এছাড়া নামমাত্র মূল্যে মানসিক রোগীদের জন্য রয়েছে অনেক সেবা।

এই হাসপাতালটিতে রোগীদের বিনামূল্যে ওষুধ ও সাইকোথেরাপি দেওয়া হয়। হাসপাতালটিতে যে রোগীরা ভর্তি থাকেন তাদের জন্য ওষুধ ফ্রি। ‍এছাড়া যে রোগীরা বহির্বিভাগে চিকিৎসক দেখান তাদের কমপক্ষে ৭ দিনের ওষুধ বিনামূল্যে দেওয়া হয়। ৬০ ভাগ পেয়িং (টাকা দিয়ে থাকতে হয়) বেড। ৪০ ভাগ নন পেয়িং বেড। পেয়িং বেড ২৭৫ টাকা, কেবিনের ভাড়া ৪২৫ টাকা।

দুই যুগেরও বেশি সময় আগে শেরে বাংলানগরে গড়ে উঠেছে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হাসপাতাল। ১.৭৯ একর জমির ওপর গড়ে ওঠা হাসপাতালটিতে আছে বহির্বির্ভাগ এবং আন্তঃবিভাগ।

১৯৮৮ সালে মিটফোর্ড হাসপাতালে থাকার সময় একে ইনস্টিটিউট অব মেন্টাল হেলথ অ্যান্ড রিসার্চ (আইএমএইচএআর) হিসেবে নামকরণ করা হয়।

১৯৯০ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজে প্রতিষ্ঠানটি স্থানান্তরিত করা হয়। তবে বহির্বিভাগ ও আন্তঃবিভাগের সুবিধা তখন ছিল না। পরে শেরে বাংলানগরের জায়গাটি বরাদ্দ নেওয়া হয়।

এরপর ২০০০ সালে প্রতিষ্ঠানটি অধিকতর উন্নত হয়ে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়।

নতুন জায়গায় হাসপাতালটি প্রথমে কেবল আউটডোর হিসেবে চালু হয়। এরপর ২০০১ সালে সব কর্মকর্তা নিয়োগের পর আউটডোর এবং ইনডোর এবং জরুরি বিভাগ চালু হয়। বর্তমানে সরকারের আর্থিক সহযোগিতায় প্রতিষ্ঠানটি চলে। এ ছাড়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কিছু ফান্ড দেয়।

হাসপাতালটিতে ছয়টি বিভাগ রয়েছে। এগুলো হলো এডাল্ট সাইকিয়াট্রিক বিভাগ, শিশু এবং এর বিকাশে সাইকিয়াট্রিক বিভাগ, বয়স্কদের মানসিক রোগ ও কমিউনিটি মানসিক রোগ বিভাগ। এ ছাড়া এখানে রয়েছে ক্লিনিক্যাল সাইকোলোজি বিভাগ।

এর পাশাপাশি রয়েছে সাহায্যকারী বিভাগ রেডিওলজি, এনেসথেসিওলজি ও প্যাথলজি বিভাগ। রয়েছে সমাজ কল্যাণ বিভাগও। তবে এটা সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আওতায় পরিচালিত হয়। বর্তমানে এখানে চিকিৎসক রয়েছে ৪৪ জন। কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা ১৮৪ জন।


সময় জার্নাল/ইএইচ


Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২২ সময় জার্নাল