আজ শনিবার, জানুয়ারী ২৩, ২০২১ | ৯ মাঘ, ১৪২৭

শিরোনাম

বেলুন বিক্রির টাকায় চলে সাত সদস্যের সংসার

প্রকাশিত: বুধবার, জানুয়ারী ১৩, ২০২১


বেলুন বিক্রির টাকায় চলে সাত সদস্যের সংসার

অ আ আবীর আকাশ, লক্ষ্মীপুর থেকে :

বেল্লাল হোসেন ছয় বছর ধরে বেলুন বিক্রি করে। পাঁচ ভাইবোনের মধ্যে তৃতীয় সে। বাবা আজগর হোসেন কৃষিকাজ করেন, মা গৃহিনী। স্কুল বন্ধ থাকায় ছোট আরো দুই ভাই তার সাথে বেলুন বিক্রি করে। প্রতিটি বেলুন ৫০ টাকা করে বিক্রি হয়।

জনবহুল স্থানে ঘুরে ফিরে বেলুন বিক্রি করে বেল্লাল। তবে বিভিন্ন অনুষ্ঠান হলে একটু ভালো বিক্রি হয়। ছোট ছোট বাচ্চা ছেলেমেয়েদের টার্গেট করে সে স্থানে ঘুরঘুর করে মনোহারী বেলুন নিয়ে। কোন অনুষ্ঠান বা সভা-সেমিনার না থাকলে হাসপাতাল এলাকায় বেলুন নিয়ে যায়। সেখানে রোগী ও দর্শনার্থীদের সাথে ছোট ছোট বাচ্চাছেলেমেয়েরা আকৃষ্ট হয় নানা রঙের, নানা ডিজাইনের বেলুন দেখে। হাতি, ঘোড়া, মাছ, বিমান, পাখি ও কুকুরসহ নানা বন্য পশু পাখির অবয়বে তৈরি হয় বেলুন। হাওয়া ও গ্যাস দুই ধরনের বেলুন হয়, তবে গ্যাসভর্তি উড়ন্ত বেলুনের চাহিদা ভালো। প্রতিদিন তিন ভাই মিলে প্রায় আড়াই হাজার থেকে তিন হাজার টাকার বেলুন বিক্রি করে।

প্যাকেট বা কার্টুন হিসেবে হাওয়া বা গ্যাসহীন খালি বেলুন কিনে বেল্লাল বাড়িতে বা সুবিধামতো স্থানে বসে গ্যাস ভর্তি করে তারপর বিভিন্ন স্থানে ফেরি করে বিক্রি করে। 

হাসপাতাল ছাড়াও দক্ষিণ ও উত্তর তেমুহনী, কোর্ট এলাকা, বিজয় চত্তর, বাজারের কসমেটিক ও শাড়ি পট্টি, স্কুলের গেটে দাঁড়িয়ে বা হেঁটে হেঁটে বেলুন বিক্রি করা হয়। অভিভাবকদের অনিচ্ছাসত্ত্বেও বাচ্চাদের কান্নাকাটিতে ৫০ টাকা দিয়ে বেলুন কিনতে বাধ্য হয়। দেখা গেছে বেলুন কিনে একটু সামনে যেতেই পলিথিন আবৃত বেলুন লিকেজ হয়ে গ্যাস উদাও। স্বল্প সময়ের জন্য মনোহর বেলুন বিক্রি করে সাত সদস্যের পরিবার বেশ ভালোই চলছে।

বেলালের বাড়ি লক্ষ্মীপুর সদরের জকসিন বাজার এলাকায়।

কারাগারে হলমার্কের জিএমের নারীসঙ্গ, ডেপুটি জেলারসহ ৩ জন প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএমের নারীসঙ্গ, ডেপুটি জেলারসহ ৩ জন প্রত্যাহার

যাদবপুরে নৌকার মাঝি হতে চান মুক্তিযোদ্ধা আউলাদ

যাদবপুরে নৌকার মাঝি হতে চান মুক্তিযোদ্ধা আউলাদ

করোনায় আক্রান্ত জিদান

করোনায় আক্রান্ত জিদান

সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধাকে নির্যাতন: গৃহকর্মী রেখা রিমান্ডে

সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধাকে নির্যাতন: গৃহকর্মী রেখা রিমান্ডে

ওবায়দুল কাদেরকে কটূক্তি, কাদের মির্জার অনশন

ওবায়দুল কাদেরকে কটূক্তি, কাদের মির্জার অনশন

ভারতের চলচ্চিত্র উৎসবে তৌকীরের দুই ছবি

ভারতের চলচ্চিত্র উৎসবে তৌকীরের দুই ছবি

এবার পাকিস্তানকে টিকা উপহার দিচ্ছে চীন

এবার পাকিস্তানকে টিকা উপহার দিচ্ছে চীন

কাউন্সিলর তরিকুলের হত্যা ছিলো পূর্ব পরিকল্পিত, ঘাতক আটক

কাউন্সিলর তরিকুলের হত্যা ছিলো পূর্ব পরিকল্পিত, ঘাতক আটক

সিরিজ জয়:  টাইগারদের অভিনন্দন জানালেন প্রধানমন্ত্রী

সিরিজ জয়: টাইগারদের অভিনন্দন জানালেন প্রধানমন্ত্রী

ট্রাম্পকে একা ফেলে চলে গেলেন মেলানিয়া!

ট্রাম্পকে একা ফেলে চলে গেলেন মেলানিয়া!

জালে ধরা পড়া লাউভোলা মাছে ভাগ্য খুললো রফিকুলের

জালে ধরা পড়া লাউভোলা মাছে ভাগ্য খুললো রফিকুলের

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ ঘরে তুললো টাইগাররা

এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ ঘরে তুললো টাইগাররা

ব্যাংকের পরিচালক, এমডিদের সম্পদ বিবরণী দাখিলের নির্দেশ

ব্যাংকের পরিচালক, এমডিদের সম্পদ বিবরণী দাখিলের নির্দেশ

রাত পোহালেই হাতীবান্ধায় প্রধানমন্ত্রীর ঘর পাচ্ছেন ৪২৫ পরিবার

রাত পোহালেই হাতীবান্ধায় প্রধানমন্ত্রীর ঘর পাচ্ছেন ৪২৫ পরিবার

ফিফটি করেই ফিরলেন তামিম

ফিফটি করেই ফিরলেন তামিম

জাতীয় পরিচয়পত্র ধরে ভ্যাকসিন দেয়ার আহ্বান

জাতীয় পরিচয়পত্র ধরে ভ্যাকসিন দেয়ার আহ্বান

মেলায় বেলুন ফোলানোর সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দুই শিশুর মৃত্যু, আহত ১০

মেলায় বেলুন ফোলানোর সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দুই শিশুর মৃত্যু, আহত ১০

দেশে একদিনে আরও ১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৬১৯

দেশে একদিনে আরও ১৫ মৃত্যু, শনাক্ত ৬১৯

করোনায় মৃতের পরিবারের হাতে দশ লক্ষ টাকার চেক তুলে দিল ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড

করোনায় মৃতের পরিবারের হাতে দশ লক্ষ টাকার চেক তুলে দিল ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ড

সুন্দরবনের গহীনে বাঘের আক্রমনে ২ জন নিহত : নিখোঁজ ১

সুন্দরবনের গহীনে বাঘের আক্রমনে ২ জন নিহত : নিখোঁজ ১