শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২

জনশক্তি রফতানিতে বাড়ছে গতি

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ৬, ২০২২
জনশক্তি রফতানিতে বাড়ছে গতি

সময় জার্নাল ডেস্ক :

জনশক্তি রফতানিতে গতি বাড়ছে। করোনা পরবর্তী রিসিভিং কান্ট্রিগুলোতে বিশাল কর্মযজ্ঞ শুরু হওয়ায় জনশক্তি রফতানির পালে হাওয়া লেগেছে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৯ মাসে জনশক্তি রফতানির সর্বোচ্চ দেশ সৌদিসহ বিভিন্ন দেশে ৮ লাখ ৭৪ হাজার ৮৪০ জন বাংলাদেশি নারী-পুরুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। এর মধ্যে গত ৬ মাসে  সৌদি  আরবেই ৫ লাখ বাংলাদেশির কর্মসংস্থান হয়।


গত আগস্টের তুলনায় সেপ্টেম্বরে রেমিট্যান্সে ভাটার টানা দেখা দিয়েছে। ইতালি থেকে প্রবাসীদের রেমিট্যান্সের গতি বাড়াতে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মনিরুছ সালেহীনের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল গতকাল বুধবার রোমের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেছে।


 এদিকে জাপানের সাথে জনশক্তি রফতানি সংক্রান্ত সম্পাদিত চুক্তির দীর্ঘ দিন পরও বাংলাদেশ থেকে কর্মী প্রেরণে আশানুরূপ সাড়া মেলেনি। এতে করে দেশটির শ্রমবাজার হাত ছাড়া হবার উপক্রম। আইএম জাপানের প্রতিনিধি দলের সাথে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদের মাঝে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের পরও দেশটিতে কর্মী নিয়োগের কোনো গতি বাড়েনি। ভিয়েতনাম, শ্রীলঙ্কা, চীন, নেপাল থেকে প্রচুর সংখ্যায় অভিবাসী কর্মী জাপানে কর্মসংস্থান লাভ করছে।


অথচ বাংলাদেশ থেকে চলতি বছরের ৯ মাসে মাত্র ৩০০ শিক্ষানবিশ কর্মী জাপানে গেছে। টোকিওস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের ক‚টনৈতিক তাৎপরতার অভাবে দেশটিতে শিক্ষানবিশ কর্মী নিয়োগে গতি বাড়েনি। অনুমোদিত একাধিক রিক্রুটিং এজেন্সির মালিক এ তথ্য জানিয়েছেন। প্রবাসী মন্ত্রণালয় গতকাল পর্যন্ত ৬৮টি রিক্রুটিং এজেন্সিকে জাপানে কর্মী প্রেরণের অনুমতি দিয়েছে।


এন-৪, এন-৫ গ্রেডের জাপানি ভাষা শিক্ষার শর্ত থাকায় দেশটির নিয়োগকর্তারা বাংলাদেশ থেকে প্রচুর সংখ্যায় কর্মী নেয়ার আগ্রহ থাকার পরও চাহিদাপত্র ইস্যু করতে পারছে না। ঢাকা-টোকিও জাপানিজ লেঙ্গুয়েজ একাডেমির চেয়ারম্যান আক্তার মো. পারভেজ হিমু গত মঙ্গলবার জাপান থেকে এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সরকারের আমলাতান্ত্রিক জটিলতা এবং যথাযথ সহায়তার অভাবে সম্ভাবনাময় জাপানের শ্রমবাজার ভিয়েতনাম, শ্রীলঙ্কা ও নেপালের দখলে চলে যাচ্ছে।


এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জাপানের বিভিন্ন খাতে উচ্চ বেতনে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি কর্মীর চাহিদা রয়েছে। জাপানে শ্রমবাজার পুনরুদ্ধারে সম্পাদিত চুক্তি জরুরি ভিত্তিতে সংশোধন করা জরুরি হয়ে পড়েছে। অন্যথায় দেশটির শ্রমবাজার পুরোপুরি অন্যান্য দেশের দখলে চলে যাবে। ফলে দেশ বঞ্চিত হবে কোটি কোটি টাকার রেমিট্যন্সের সুফল থেকে। প্রবাসী মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মনিরুছ সালেহীন জাপানি ভাষা শিক্ষায় বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষতা অর্জনের লক্ষ্যে জাপানি প্রশিক্ষক প্রেরণের সহায়তা কামনা করে দেশটির সরকারের কাছে একটি চিঠি দিয়েছেন। কিন্তু এ ব্যাপারে আর কোনো ফলোআপ করার প্রয়োজন বোধ করেননি প্রবাসী সচিব। বিএমইটির রেকর্ড অনুযায়ী, ১৯৭৬ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৩০ লাখ বাংলাদেশি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাজে গেছেন। সম্ভাবনাময় শ্রমবাজার জাপান, বাহরাইন, কাতার, দক্ষিণ কোরিয়া, লেবানন, জর্ডান ও লিবিয়ায় যথাযথ প্রক্রিয়ায় কর্মী প্রেরণের সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে জনশক্তি রফতানিতে আরো সাফল্য অর্জন করা সম্ভব হবে। অভিজ্ঞ মহল এ অভিমত ব্যক্ত করেছেন ।


এদিকে জনশক্তি রফতানি সংক্রান্ত প্রতিষ্ঠান বোয়েসেল খুঁড়িয়ে চলছে। শ্রমবাজার সম্প্রসারণে বোয়েসেলের তেমন কোনো দৌঁড়-ঝাপ পরিলক্ষীত হচ্ছে না। বোয়েসেলের গতি বাড়ানো সম্ভব হলে সম্ভাবনাময় দক্ষিণ কোরিয়ায় প্রচুর সংখ্যায় বাংলাদেশি কর্মী প্রেরণ সম্বভ হবে। ইপিএস সিস্টেমের মাধ্যমে একাধিক পরীক্ষার উত্তীর্ণ হয়ে দেশটিতে যেতে বহু বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছে কোরিয়া গমনেচ্ছু কর্মীরা।


গত মঙ্গলবার রাতে বোয়েসেলের মাধ্যমে ১২১ জন বাংলাদেশি কর্মী দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেছে। এ নিয়ে ২০০৮ সাল থেকে গতকাল পর্যন্ত বোয়েসেলের মাধ্যমে দেশটিতে চাকরি লাভ করেছে ২৫ হাজার ৬০৭ জন কর্মী। বোয়েসেলে ইপিএস কর্মীদের সেবা ডেস্কে কোরিয়াগামী কর্মীর কারো কারো কাগজপত্র ঠিক করার নামে কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছে বলে অসমর্থিত সূত্র জানিয়েছে।



গত মাসে ১৫৩ কোটি ৯৫ লাখ ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। প্রতি ডলার ১০৩ টাকা ৫০ পয়সা হিসাবে বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ প্রায় ১৬ হাজার কোটি টাকা। গত ৭ মাসের মধ্যে এটিই প্রবাসীদের পাঠানো সর্বনিম্ন রেমিট্যান্স। যদিও সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহের গড়ে যেভাবে রেমিট্যান্স এসেছিল সে তুলনায় দ্বিতীয়, তৃতীয় এবং চতুর্থ সপ্তাহে কিছুটা কমে গেছে। এ কারণে পুরো মাসেই কমেছে রেমিট্যান্স। বাংলাদেশ ব্যাংকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।


গতকাল টোকিও থেকে বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার উইংয়ের প্রথম সচিব জয়নাল আবেদীন জানান, জাপানে প্রচুর বাংলাদেশি কর্মীর চাহিদা রয়েছে। গত বছর ডিসেম্বর পর্যন্ত জাপানে কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীর সংখ্যা ছিল ১৮ হাজার ৫৫ জন। আর গত ৯ মাসে দেশটিতে আরো ৩০০ কর্মী এসেছে। জাপানের শ্রমবাজারের গতি বাড়াতে প্রবাসী মন্ত্রণালয় ও টোকিওস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলে তিনি দাবি করেন। আগামী জানুয়ারি থেকে ঢাকায় ওয়ার্ক পারমিটের জাপান গমনেচ্ছু কর্মীদের স্কিল টেস্ট পরীক্ষা শুরু হবে। এতে দেশটিতে কর্মী নিয়োগের সংখ্যা আরো বৃদ্ধি পাবে।


রাজধানীর রামপুরায় নিহোঙ্গো ট্রেনিং সেন্টারের (জাপানি ভাষা শিক্ষা কেন্দ্র) স্বত্বাধীকারী মো. মোমেনুল ইসলাম বলেন, জাপানে কর্মী নিয়োগের চাহিদাপত্র এলে প্রবাসী মন্ত্রণালয় থেকে নিয়োগানুমতি এবং বর্হিগমন ছাড়পত্র পেতে ৬ থেকে ৭ মাস সময় লেগে যায়। এতে জাপানি নিয়োগকর্তারা কর্মী প্রেরণে অহেতুক বিলম্বের দরুণ বাংলাদেশি কর্মী নিয়োগে অনীহা প্রকাশ করছে। তিনি জাপানের শ্রমবাজারের স্বার্থে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে নিয়োগানুমতি প্রদান এবং যথযথা অভিবাসন ব্যয় নির্ধারণের জোর দাবি জানান।


এসএম



Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২২ সময় জার্নাল