শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২

প্রথম ম্যাচেই বড় ধাক্কা, হতাশ আর্জেন্টিনা

মঙ্গলবার, নভেম্বর ২২, ২০২২
প্রথম ম্যাচেই বড় ধাক্কা, হতাশ আর্জেন্টিনা


স্পোর্টস ডেস্ক:


প্রথমার্ধে খেলাটা ঠিকঠাক ফিনিশিং দিতে পারেনি আর্জেন্টিনা। তার মাশুলটা দেয় দ্বিতীয়ার্ধে। বিরতির পর সৌদি আরব গা ঝাড়া দিয়ে উঠল যেন। তিন মিনিটের মধ্যেই গোল করে দলকে সমতায় ফেরান সৌদি ফরোয়ার্ড সালেহ আলসেহরি।ওই গোলই যেন ভড়কে দিল আর্জেন্টিনাকে। সে গোলের ধাক্কাটা কাটিয়ে উঠতে পারেনি, রক্ষণও ধাতস্থ হতে পারেনি, এমন সময় ৫৩ মিনিটেই আবার গোল খেয়ে বসে দলটি। স্ট্রাইকার সালেম আল দাওসারির দারুণ এক গোলে সৌদি আরব এগিয়ে যায় ২-১ গোলে।


টানা ৩৬ ম্যাচ অপরাজিত থেকে আর্জেন্টিনা যেন রীতিমতো উড়ছিল! লিওনেল মেসির সেই আর্জেন্টিনাকেই মাটিতে নামিয়ে আনল এশিয়ার দল সৌদি আরব। শুরুতে পিছিয়ে পড়েও আলবিসেলেস্তেদের হারাল ২-১ গোলে, জন্ম দিল এবারের বিশ্বকাপের প্রথম অঘটনের।


অথচ শুরুর অর্ধটা বলছিল, ম্যাচটা বুঝি আর্জেন্টিনা জিততে যাচ্ছে হেসে খেলেই! শুরুতেই আক্রমণে ওঠেন মেসিরা, তার একটা শট রুখে দেন গোলরক্ষক ওয়াইস। তবে ১০ মিনিটে তার পেনাল্টিটা ফেরাতে পারেননি। মেসির গোলে এগিয়ে গিয়ে আর্জেন্টিনা আক্রমণে আরও শাণ দিতে থাকে। 


২২ মিনিটে তার সূত্র ধরে আরও একবার বল জালে জড়ায় আলবিসেলেস্তেরা। তবে মেসির সেই দারুণ ফিনিশ গোলে রূপ পায়নি অফসাইডের কাটায়। লিওনেল স্ক্যালোনির দল আরও দুবার বল জড়িয়েছে সৌদির জালে। সেই দুই বারও আর্জেন্টিনার গোলের পথে কাঁটা হয়ে দাঁড়ায় অফসাইড।



আর্জেন্টিনার জন্য শেষের দিকে অলঙ্ঘনীয় প্রাচীর হয়ে ওঠেন সৌদি গোলরক্ষক মোহামেদ আল ওয়াইস। একের পর এক শট রুখে দিয়েছেন তিনি।সৌদি রক্ষণও কম যায়নি। অন্তিম সময়ে একটা শট ফিরিয়েছে একেবারে গোললাইন থেকে। আর্জেন্টিনা যে ম্যাচটা জিতছে না, সেটা নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল তখনই। বাকি ছিল কেবল রেফারির শেষ বাঁশির।


অতিরিক্ত সময় প্রথমে দেওয়া হয়েছিল ৮ মিনিট। গোলরক্ষক ওয়াইসের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত হন সৌদি ডিফেন্ডার আল শাহরানি, তাতে অতিরিক্ত সময়ের দৈর্ঘ্য বাড়ে আরও। ৮ মিনিটের পর খেলা হয় আরও প্রায় ৬ মিনিট। কিন্তু কিছুতেই কিছু হলো না আর। প্রথম ম্যাচটা হেরেই শেষ করল লিওনেল মেসির দল। তাতে বিশ্বকাপ স্বপ্নটাও তাদের ধাক্কা খেল বড়সড়।


আর্জেন্টিনা কয় গোল করবে, এর মধ্যে লিওনেল মেসিরই বা কয়টি থাকবে—সৌদি আরবের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার ম্যাচের আগে আলোচনা ছিল এ রকমই। কিন্তু বাস্তবতা কি আর সব সময় কল্পনার সঙ্গে মেলে! এ ম্যাচেও মিলল না। বিশ্বের বেশির ভাগ ফুটবলপ্রেমী বা অনুসারী মেসির শেষের শুরুর এ ম্যাচের যে পাণ্ডুলিপি লিখে রেখেছিলেন, দৃশ্যায়নটা সেভাবে হলো কই! ফুটবল–দেবতা যে চিরকালই খেয়ালি! আবারও নিজস্ব খেয়ালে মেসির শেষের শুরুর গল্প লিখলেন হতাশার রঙে। বিশ্বকাপের অন্যতম অঘটনের জন্ম দিয়ে তাই আর্জেন্টিনাকে ২–১ গোলে হারিয়ে দিল সৌদি আরব।




আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে বিশ্বকাপ ইতিহাসের অন্যতম বড় অঘটন সৌদি আরবের



প্রথম ম্যাচেই বড় ধাক্কা, হতাশ আর্জেন্টিনা দল



ম্যাচ শেষে বিপরীতমুখী দুই অনুভূতির দৃশ্যপট

ম্যাচ শেষে বিপরীতমুখী দুই অনুভূতির দৃশ্যপটছবি: রয়টার্স


সৌদি আরবের গোলকিপার মোহাম্মদ আল ওয়াইজ ছিলেন দুর্দান্ত

সৌদি আরবের গোলকিপার মোহাম্মদ আল ওয়াইজ ছিলেন দুর্দান্তছবি: রয়টার্স


৫ মিনিটের এই ঝড়ে এলোমেলো হয়ে যাওয়া আর্জেন্টিনার ওপর কিছুক্ষণ ছড়ি ঘোরান আল–শেহরি, আল দাওসারিরা। মিনেট দশেক পর যেন হুঁশ ফেরে মেসি–দি মারিয়াদের। এবার তারা গতি আর ছন্দময় ফুটবলের ঢেউ নিয়ে আছড়ে পড়ে সৌদি আরবের রক্ষণে। ৭১ মিনিটে মেসির পাস গিয়ে পড়ে বক্সে থাকা দি মারিয়ার পায়ে। কিন্তু তিনি বল তুলে দেন সৌদি আরবের গোলকিপার মোগাম্মদ আলওয়াইসের হাতে। ৮৩ মিনিটে মেসির হেড রুখে দেন তিনি। ৯০ মিনিটে বল বিপদমুক্ত করতে গিয়ে আলওয়াইস সামনে চলে যান। এ সময় বল চলে যাচ্ছিল জালে, কিন্তু অসাধারণ এক হেডে তা আটকে দেন সৌদি আরবের ডিফেন্ডার।


যোগ করা সময়েও বেশি কয়েকবার গোলের সুযোগ আসে আর্জেন্টিনার সামনে। কিন্তু সৌদি আরবের গোলকিপার আলওয়াইস কখনো ‘স্প্যানিশ ম্যাটাডোর’, কখনো আবার জার্মানির সুইপার গোলকিপার ‘ম্যানুয়েল নয়্যার’ হয়ে আবির্ভূত হয়ে রুখে দেন মেসিদের। ফল টানা ৩৬ ম্যাচের অপরাজেয় যাত্রা থেমে গেছে আর্জেন্টিনার। এর আগে আন্তর্জাতিক ফুটবলে সর্বশেষ আর্জেন্টিনা হেরেছিল ২০২০ সালের ১২ নভেম্বর প্যারাগুয়ের বিপক্ষে বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে।


এসএম



Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২২ সময় জার্নাল