বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

শত শত সেনাকে হত্যার দাবি ইউক্রেন-রাশিয়ার

রোববার, মার্চ ১২, ২০২৩
শত শত সেনাকে হত্যার দাবি ইউক্রেন-রাশিয়ার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:


এক বছরের বেশি সময় ধরে ইউক্রেনে আগ্রাসন চালাচ্ছে রাশিয়া। সাম্প্রতিক সময়ে ইউক্রেনের একটি শহরকে ঘিরে আক্রমণ জোরালো করেছে রুশ বাহিনী। অন্যদিকে পাল্টা হামলার মাধ্যমে প্রতিরক্ষার চেষ্টা চালাচ্ছে ইউক্রেনও।


এই পরিস্থিতিতে ইউক্রেন ও রাশিয়া দাবি করেছে, বাখমুত শহরের লড়াইয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় শত শত শত্রু সৈন্য নিহত হয়েছে। এছাড়া ইউক্রেনীয় সেনারা রাশিয়ার অবিরাম আক্রমণ প্রতিরোধ করছে বলেও দাবি করেছে কিয়েভ। রোববার (১২ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।


প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাখমুতে ইউক্রেনীয় সেনাদের হামলায় শনিবার মস্কোপন্থি ২২১ জন সেনা নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র সেরহি চেরেভাতি। তিনি বলেছেন, বাখমুতে মস্কোপন্থি ২২১ সেনা নিহত এবং ৩০০ জনেরও বেশি আহত হয়েছেন।


অন্যদিকে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দোনেতস্ক অংশের বৃহত্তর সম্মুখসমরে ২১০ ইউক্রেনীয় সেনা নিহত হয়েছেন। যদিও এর মধ্যে বাখমুত তাদের হামলায় ঠিক কতজন ইউক্রেনীয় সেনা হতাহত হয়েছে সেটি উল্লেখ করেনি মস্কো।


মূলত ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দোনেতস্কের বাখমুত শহরটি বছরব্যাপী যুদ্ধের সবচেয়ে রক্তক্ষয়ী এবং দীর্ঘতম যুদ্ধের স্থান বলে বিবেচিত হচ্ছে। এছাড়া জোরদার রুশ হামলা এবং ইউক্রেনের প্রতিরোধের জেরে এই শহরটি এখন প্রায় জনশূন্য।


রয়টার্স বলছে, যদিও রাশিয়া ও ইউক্রেন বাখমুতে ক্ষতির মুখে পড়ার কথা স্বীকার করেছে এবং পাল্টাপাল্টি হামলায় প্রতিপক্ষের উল্লেখযোগ্য ক্ষয়ক্ষতির দাবি করেছে তারপরও হতাহতের সঠিক সংখ্যা স্বাধীনভাবে যাচাই করা কঠিন।


ব্রিটিশ সামরিক গোয়েন্দারা শনিবার বলেছেন, রাশিয়ার ভাড়াটে ওয়াগনার গোষ্ঠী বাখমুতের পূর্বাঞ্চলের বেশিরভাগ অংশের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। চলমান যুদ্ধে এটি রাশিয়ার জন্য বেশ বড় অর্জন যা গত বুধবার গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ইয়েভজেনি প্রিগোজিন দাবি করেছেন।


ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় তার দৈনিক গোয়েন্দা বুলেটিনে বলেছে, ‘শহরের কেন্দ্রে, বখমুটকা নদী এখন সম্মুখসমরের স্থানে পরিণত হয়েছে।’


ইউক্রেন অবশ্য জোর দিয়ে বলছে, তারা বাখমুতে নিজেদের অবস্থান ধরে রেখেছে এবং রাশিয়ান বাহিনীর বিরুদ্ধে ‘প্রতিশোধ’ নিচ্ছে। বাখমুতকে রক্ষা করার দায়িত্বে থাকা ইউক্রেনের কমান্ডার বলেছেন, বাখমুত শহরের সুরক্ষার জন্য ইউক্রেনীয় পাল্টা হামলা বেশ গুরুত্বপূর্ণ।


ব্রিটিশ গোয়েন্দারা বলেছেন, নদীটির প্রাকৃতিক অবস্থানের কারণে ওয়াগনার বাহিনীর জন্য সম্মুখ আক্রমণ অব্যাহত রাখা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জিং করে তুলেছে। কিন্তু এরপরও সেখানকার পরিস্থিতি ইউক্রেনীয় বাহিনীর জন্য বেশ বিপজ্জনক।


সময় জার্নাল/এসএম 


Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

উপদেষ্টা সম্পাদক: প্রফেসর সৈয়দ আহসানুল আলম পারভেজ

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২৪ সময় জার্নাল