বুধবার, ২৫ মে ২০২২

অন্যের কথায় মন খারাপ করছেন!

বুধবার, মার্চ ৩১, ২০২১
অন্যের কথায় মন খারাপ করছেন!

প্রফেসর ডা. মেজর (অব.) আব্দুল ওহাব মিনার :


উনি আপনাকে নিয়ে অনেক কথা বলে ফেলেছেন।


আগেও বলেছেন, এখন বলছেন- ভবিষ্যতেও বলবেন এ নিয়ে আপনি এত মন খারাপ কেন করছেন। আপনি কেন উদ্বিগ্ন হচ্ছেন- ব্যথিত হচ্ছেন?


মন খারাপ করে বসে থাকছেন- কাজে যেতে ইচ্ছে করছে না। আপনি নৌকার যাত্রী হয়ে নদী পাড়ি দিচ্ছেন তীরে বসে কেউ তীর্যক মন্তব্য ছুঁড়ে দিচ্ছে - এসব ভেবে ভেবে আপনি খুন হয়ে যাচ্ছেন । এই মুহূর্তে আপনার এসব নিয়ে ভাবার সুযোগ কই? কত মানুষের কত নেতিবাচক কথা সামনে নিয়ে আসার ফুরসত কই ?


আপনি অন্য দিকে দৃষ্টি নিবদ্ধ করুন।


নদীবক্ষে প্রভাত রবির উজ্জল কিরণ যে চিকচিক করছে ঝিরঝির বাসন্তী বাতাস আপনাকে ভাসিয়ে দিয়ে যাচ্ছে- সে দিকে মনোনিবেশ করুন ।


আপনি নদী প্রান্তে সারি সারি সবুজপত্র পল্লবের দিকে তাকিয়ে থাকুন। আপনার গন্তব্য বহুদূরে । 


নদী পার হয়ে আপনি হয়তো ভাঙ্গা রাস্তার সিএনজির প্যাসেঞ্জার হবেন।  সেখানেও বাধাগ্রস্থ হবেন- সেখানে উত্তেজক মন্তব্য করবে কেউ, সেখানেও আপনাকে মাস্ক বিহীনরা আপনার ডাবল মাস্ক দেখে উদ্ভট শব্দ প্রয়োগে কটাক্ষ করবে।


আপনি জানেন আপনার গন্তব্য বহুদূর - এসব কথায় কান দেয়া যাবে না, এই উত্তেজকে রেসপন্স করা যাবে না।


সিএনজি থেকে নামার পর আপনাকে হয়তো "চলে মুসাফির" নামক কোন বাসের প্যাসেঞ্জার হতে হবে যেখানে বসার সিট না পেয়ে আপনাকে ঝুলতে ঝুলতে খোয়া গর্তের ভাঙ্গা পথটা পাড়ি দিতে হবে ।


ঝালমুড়িওয়ালার চিৎকার চেঁচামেচি আর কন্টাক্টরের কনুইয়ের ধাক্কা সব সামলে নিয়ে আপনাকে মাথা ঠান্ডা রেখে পথ চলতে হবে। 


দুর্গম পথ পাড়ি দিতে হবে - যেতে হবে বহুদূর।


আপনার স্বপ্ন পূরণের এক বাস্তব মিশন যেখানে মাঝপথে থেমে গেলে হবে না, ফিরে যাবার সুযোগ নেই।


তখনই আপনি পারবেন আপনি যখন বুঝতে শিখবেন প্রাথমিক পর্যায়ে আপনার এই নতুন কাজের কোন সাথী নেই, সঙ্গী নেই -সবাই ব্যঙ্গ করবে -তামাশা দেখবে আর সমালোচনায় সিদ্ধ হবে তাদের বাক্যবান।


তারা পদে পদে বাধাগ্রস্ত করবে, খারাপ কথা বলবে, আপনার মনোবল ভেঙে দেওয়ার জন্য সবকিছু করবে।


এটা তাদের একটা মাইন্ড গেম, এতে তারা বিকৃত তৃপ্তি পায়। 


আপনি যে নদী পার হয়ে এসেছেন সামনে অপেক্ষমান এর চেয়ে বিশাল নদী, নির্জন এলাকা। ভয়ে আতঙ্কে সমুদ্র সম ওই নদী তীরে কেউ পা মারায় না।


আপনি কি পারবেন সকলের বাধাকে উপেক্ষা করে উত্তাল তরঙ্গের ওই নদীকে অতিক্রম করে গন্তব্যের দিকে তীব্র গতিতে ছুটতে?


আপনি পারবেন, আপনাকে পারতেই হবে। কারণ আপনি আপনার নিজস্ব শক্তিতে আস্থাভাজন ও আত্মবিশ্বাসী।


আপনি এই অভিযানে বিজয়ী হলে আপনি আত্মপ্রত্যয়ী অজস্র নতুন মুখ সাথে পাবেন। সেই চূড়ান্ত বিজয় আপনার জন্য অপেক্ষা করছে।



লেখক :  অধ্যাপক, মনোরোগ বিভাগ, কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজ, টাঙ্গাইল। 


সময় জার্নাল/ইএইচ


Somoy Journal is new coming online based newspaper in Bangladesh. It's growing as a most reading and popular Bangladeshi and Bengali website in the world.

যোগাযোগ:
এহসান টাওয়ার, লেন-১৬/১৭, পূর্বাচল রোড, উত্তর বাড্ডা, ঢাকা-১২১২, বাংলাদেশ
কর্পোরেট অফিস: ২২৯/ক, প্রগতি সরণি, কুড়িল, ঢাকা-১২২৯
ইমেইল: somoyjournal@gmail.com
নিউজরুম ই-মেইল : sjnewsdesk@gmail.com

কপিরাইট স্বত্ব ২০১৯-২০২২ সময় জার্নাল